• সোমবার ১৭ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ২ ১৪৩১

  • || ০৯ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
তারেকসহ পলাতক আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে কোরবানির পশু বেচাকেনা এবং ঘরমুখো মানুষের নিরাপত্তার নির্দেশ তিস্তা মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নে চীনের কাছে ঋণ চেয়েছি গ্লোবাল ফান্ড, স্টপ টিবি পার্টনারশিপ শেখ হাসিনাকে বিশ্বনেতৃবৃন্দের জোটে চায় শিশুর যথাযথ বিকাশ নিশ্চিতে সকল খাতকে শিশুশ্রমমুক্ত করতে হবে শিশুশ্রম নিরসনে প্রত্যেককে আরো সচেতন হতে হবে : প্রধানমন্ত্রী ব্যবসায়িদের প্রতি নিয়ম নীতি মেনে কার্যক্রম পরিচালনার আহ্বান বিনামূল্যে সরকারি বাড়ি গৃহহীনদের আত্মমর্যাদা এনে দিয়েছে প্রধানমন্ত্রীর জিসিএ লোকাল অ্যাডাপটেশন চ্যাম্পিয়নস অ্যাওয়ার্ড গ্রহণ আশ্রয়ণের ঘর মানুষের জীবন বদলে দিয়েছে: প্রধানমন্ত্রী ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত ঘরবাড়ি তৈরি করে দেব : প্রধানমন্ত্রী নতুন সেনাপ্রধান ওয়াকার-উজ-জামান প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর পাচ্ছে সাড়ে ১৮ হাজার পরিবার শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস আজ শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করলেন সোনিয়া গান্ধী মোদীকে বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ জানালেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শেখ হাসিনা-মোদি বৈঠকে দু’দেশের সম্পর্ক আগামীতে আরো দৃঢ় হবে বাংলাদেশ ভুটান থেকে জলবিদ্যুৎ আমদানি করতে আগ্রহী : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা-নরেন্দ্র মোদী সংক্ষিপ্ত শুভেচ্ছা বিনিময় অ্যাক্রেডিটেশন দেশের অর্থনীতিকে সুদৃঢ় করতে সহায়তা করে: রাষ্ট্রপতি

চাঁদকে ‘হিন্দু রাষ্ট্র’ ঘোষণার দাবি

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ২৮ আগস্ট ২০২৩  

প্রথমবারের চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে পা রেখে ইতিহাস গড়েছে ভারত। গত ২৩ আগস্ট সন্ধ্যায় সফলভাবে সফট ল্যান্ডিং করেছে দেশটির মহাকাশযান চন্দ্রযান-৩। আর সেই ল্যান্ডিং স্পটের নাম ‘শিবশক্তি’ রাখেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।  

এই নামকরণ নিয়ে যখন ভারতজুড়ে আলোচনা-সমালোচনা চলছে, তখনই এই ঝড়ে আরও হাওয়া দিলেন সর্বভারতীয় হিন্দু মহাসভার জাতীয় সভাপতি স্বামী চক্রপাণি মহারাজ। এবার চাঁদকে ‘হিন্দু রাষ্ট্র’ হিসেবে ঘোষণার দাবি তুলেছেন তিনি। আর মোদির ঘোষণা দেওয়া ‘শিবশক্তি’কে সেই রাষ্ট্রের রাজধানী হিসেবে চান তিনি।

রোববার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম এক্সে (সাবেক টুইটার) পোস্ট করা এক ভিডিও বার্তায় তিনি এ দাবি করেন।

তিনি বলেন, ‘আমি চাই ভারতীয় পার্লামেন্ট একটি প্রস্তাবের মাধ্যমে চাঁদকে হিন্দু রাষ্ট্র হিসেবে ঘোষণা করুক। আর চন্দ্রযান-৩ যেখানে অবতরণ করেছে সেই ‘শিব শক্তি’ পয়েন্টকে রাজধানী হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। কারণ শিবশক্তি পয়েন্টকে আমি শিবশক্তি ধাম হিসেবেই দেখছি। হিন্দু মহাসভা এবং সন্ত মহাসভার তরফ থেকে এই মর্মে আমরা সরকারের কাছে একটি চিঠিও লিখছি। যত দ্রুত সম্ভব চাঁদকে হিন্দুরাষ্ট্র ঘোষণা করা হোক। আমার আরও একটি প্রস্তাব আছে। চাঁদে যাতায়াত শুরু হলেই ওই শিবশক্তি পয়েন্টে আমি ভগবান শিব, মা পার্বতী এবং ভগবান গণেশের একটি মন্দির তৈরি করব।  

এমন দাবির কারণ জানাতে হিন্দু মহাসভার জাতীয় সভাপতি লিখেছেন, ‘কোনো সন্ত্রাসী জিহাদি মানসিকতা নিয়ে যাতে সেখানে পৌঁছাতে না পারে, কট্টরপন্থা ও সন্ত্রাসবাদের বিকাশ যাতে না হয় সেজন্য চাঁদকে সনাতন হিন্দু রাষ্ট্র হিসেবে ঘোষণা দেওয়া উচিত। ’

এদিকে মোদির ‘শিবশক্তি’ পয়েন্ট ঘোষণা নিয়ে সমালোচনা করেছে বিরোধী দল কংগ্রেস। কংগ্রেস নেতা রশিদ আলভির ভাষ্য, চাঁদের মাটি ছোঁয়ার অর্থ তার ওপর দখলদারি করা নয়।  

চন্দ্রপৃষ্ঠের নামকরণ নিয়ে প্রশ্ন তুলে তিনি বলেন, ‘গোটা পৃথিবী আমাদের দেখে হাসবে। আমরা চাঁদের মাটি ছুঁয়েছি, অত্যন্ত খুশির খবর। আমরা সকলেই গর্ববোধ করছি। সেই নিয়ে কোনও সন্দেহ নেই। কিন্তু না আমরা চাঁদের মালিক, না কোনো পয়েন্টের। ’