• শুক্রবার   ০১ জুলাই ২০২২ ||

  • আষাঢ় ১৬ ১৪২৯

  • || ৩০ জ্বিলকদ ১৪৪৩

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
পদ্মা সেতুতে নাশকতার চেষ্টা: আটক ১ সঞ্চয় বাড়ানোর পরামর্শ প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা হচ্ছে নতুন মুদ্রানীতি সব ধরনের অপ্রয়োজনীয় ব্যয় কমাতে হবে: প্রধানমন্ত্রী ৬ লাখ ৭৮ হাজার ৬৪ কোটি টাকার বাজেট পাস হচ্ছে আজ নির্মল রঞ্জন গুহের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক সায়মা ওয়াজেদের মমত্ববোধ রেল ক্রসিংয়ে ওভারপাস করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত সড়কে সেতু-উড়াল সড়ক নির্মাণের নির্দেশ ব্যবসা বৃদ্ধিতে যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন করা হচ্ছে: প্রধানমন্ত্রী তিন বাহিনীর সমন্বয়ে নিশ্চিত হবে পদ্মা সেতুর নিরাপত্তা চাকরির একমাত্র বিকল্প শিক্ষিত বেকারদের উদ্যোক্তা হিসেবে গড়ে তোলা পদ্মা সেতুতে দক্ষিণাঞ্চলের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন হবে স্বপ্নজয়ের পর অপার সম্ভাবনার হাতছানি পদ্মা সেতু: প্রধানমন্ত্রীকে এশিয়ার পাঁচ দেশের অভিনন্দন ক্ষুদ্র-মাঝারি শিল্পের সুষ্ঠু বিকাশে কাজ করছে সরকার পদ্মা সেতুর সফলতায় প্রধানমন্ত্রীকে কুয়েতের রাষ্ট্রদূতের অভিনন্দন নতুন প্রজন্মকে প্রস্তত হতে বললেন প্রধানমন্ত্রী আমরা বিজয়ী জাতি, মাথা উঁচু করে চলবো: প্রধানমন্ত্রী মাদকের বিরুদ্ধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

চোখে সুরমা ব্যবহারে ইসলাম ও বিজ্ঞান

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ৩০ এপ্রিল ২০২২  

প্রিয় নবী হজরত মুহাম্মদ ( সা.) আমাদের চোখে সুরমা পরার উপদেশ দিয়ে গেছেন। কেননা সুরমা ব্যবহার চোখের জন্য বিশেষ উপকারী। হাদিস ও বিজ্ঞান গবেষণায়ও পাওয়া গেছে সুরমা ব্যবহারের নানান উপকারিতা।

সুরমা একটি খনিজদ্রব্য। এটি লিড সালফাইড হিসেবেও পরিচিত। এই খনিজদ্রব্য চূর্ণ করেই তৈরি করা হয় সুরমা।

রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম সাহাবাদের ‘ইছমিদ’ সুরমা ব্যবহারের উপদেশ দিয়েছেন এবং তার উপকারিতা বর্ণনা করেছেন।

রাসুলুল্লাহ (সা.) বলেছেন, তোমরা ঘুমের সময় অবশ্যই ‘ইছমিদ’ সুরমা ব্যবহার করবে। কারণ তা ব্যবহারে চোখের জ্যোতি বাড়ে এবং অধিক ভ্রু জন্মে। (ইবনে মাজাহ, মুসনাদে আবু ইয়ালা)

এ বিষয়ে হজরত ইবনে আব্বাস রাদিয়াল্লাহু বলেন, প্রিয় নবীর (সা.) একটি সুরমাদানি (সুরমা রাখার পাত্র) ছিল। প্রত্যেক রাতে ঘুমানোর আগে তিনি ডান চোখে ৩ বার এবং বাম চোখে ৩ বার সুরমা লাগাতেন। (সুনানে বায়হাকি)

হাদিসের পাশাপাশি বিজ্ঞানেও মিলেছে এর উপকারী গুণ। নিয়মিত সুরমা ব্যবহারে চোখে জ্যোতি বাড়ে। কারণ চোখের দৃষ্টিশক্তি বৃদ্ধিতে প্রতিবন্ধক জীবাণুকে ধ্বংস করতে পারে এই সুরমা।

চোখে জ্বালাপোড়া নিরাময় করার পাশাপাশি এটি চোখের প্রবেশকৃত ধুলা ও ক্ষতিকর পদার্থগুলো নিঃসরণে কার্যকর ভূমিকা পালন করে। এ ছাড়া সুরমায় রয়েছে চোখের জন্য ছোঁয়াচে সব ধরনের রোগজীবাণুকে ধ্বংস করার ক্ষমতা।

চোখের যাবতীয় কল্যাণে আমরা সবসময় প্রিয় নবীর উপদেশ মেনে সঠিক পদ্ধতিতে চোখে সুরমা পরব।