• শুক্রবার   ১৯ আগস্ট ২০২২ ||

  • ভাদ্র ৩ ১৪২৯

  • || ২০ মুহররম ১৪৪৪

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করলেন জাতিসংঘ মানবাধিকার প্রধান বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর আ. লীগের নেতারা কী করেছিলেন: প্রধানমন্ত্রী সুশীল বাবু মইনুল খুনিদের নিয়ে দল গঠন করে: প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু হত্যায় জড়িতরা আজ মানবাধিকারের কথা বলে: প্রধানমন্ত্রী ভারত পারলে আমরাও রাশিয়া থেকে তেল কিনতে পারবো: প্রধানমন্ত্রী ‘ষড়যন্ত্র প্রতিহত করে বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচারের রায় কার্যকর করেছি’ খবরদার আন্দোলনকারীদের ডিস্টার্ব করবেন না: প্রধানমন্ত্রী জাতির পিতার মৃত্যু নেই প্রজন্ম থেকে প্রজন্মান্তরে বঙ্গবন্ধু আমাদের রোল মডেল শোক দিবসে বঙ্গভবনে বিশেষ দোয়ার আয়োজন রাষ্ট্রপতির টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানোর বিষয়ে পরিষ্কার ব্যাখ্যার নির্দেশ বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল ট্রাস্টের সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত মানবাধিকার কমিশনকে যথাযথভাবে দায়িত্ব পালনের নির্দেশ রাষ্ট্রপতির ৪০০তম ওয়ানডে খেলার অপেক্ষায় বাংলাদেশ জ্বালানি নিরাপত্তা: বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনার অবদান রাজনৈতিক সিদ্ধান্তে বঙ্গমাতার মনোভাব প্রতিফলিত হয়েছে বঙ্গমাতার সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা স্বাধীনতার সংগ্রামে বঙ্গবন্ধুর সারথি ছিলেন আমার মা: প্রধানমন্ত্রী বঙ্গমাতা কঠিন দিনগুলোতে ছিলেন দৃঢ় ও অবিচল: রাষ্ট্রপতি

বর্ষায় বাড়িকে সুরক্ষিত রাখতে এই কাজগুলি করেছেন তো?

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ২৯ জুন ২০২২  

এই রোদ তো এই বৃষ্টি। ভেজা স্যাঁতস্যাতে চতুর্দিক। আবহাওয়া দপ্তরের পূর্বাভাস অনুযায়ী বর্ষা চলছে। এই মৌশুমে বাড়ির যত্ন নেওয়া বাধ্যতামূলক। কীভাবে যত্ন নেবেন, তা বুঝতে পারছেন না তাই তো? আপনার জন্য রইল টিপস। মনে রাখবেন, সঠিক উপায়ে বাড়ির যত্ন নিতে না পারলে আপনার সুখী গৃহকোণের ক্ষতি হতে বাধ্য।

বাড়িতে পাপোশ ব্যবহার করেন প্রায় সকলেই। বর্ষাকালে পাপোশের যত্ন নেওয়া আবশ্যক। নইলে পরিষ্কার থাকার পরিবর্তে বাড়ি অপরিষ্কারই হবে বেশি।

তাই শুকাতে দেরি হবে এমন পাপোশ বৃষ্টির মৌশুমে ভুলে ব্যবহার করবেন না। পরিবর্তে সেগুলি প্লাস্টিকে মুড়ে তুলে রাখুন। কার্পেটের ক্ষেত্রেও একই নিয়ম মেনে চলুন। নইলে বাড়িতে পোকামাকড়ের উপদ্রব হওয়াই স্বাভাবিক।

বর্ষা পোকামাকড়ের উপদ্রব বেশি হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। তাই এই সময় আপনার বাড়ির নর্দমাগুলির দিকে বিশেষ নজর দিন। কোনওভাবে যাতে সেই সমস্ত জায়গা দিয়ে পোকামাকড় বাড়িতে ঢুকতে না পেরে, সে বিষয়ে নিশ্চিত হন।

ভেজা ছাতা, ভেজা জুতো কোথায় রাখা হবে, তা নিয়ে সমস্যায় পড়েন বহু গৃহস্থ। সেই সমস্যা যাতে না হয় তাই এখনই বাড়ির বাইরে একটি তাকের বন্দোবস্ত করুন। তাতেই সাজিয়ে রাখুন ভেজা জুতা। আর দেওয়ালে একটি পিনের বন্দোবস্ত করতে পারেন। সেখানে ভিজা ছাতা ঝুলিয়ে দিন। পানি ঝরে যাওয়ার পর বাড়ির ভিতরে ঢুকিয়ে নিন।

আলমারিতে পোকামাকড়ের উপদ্রব রুখতে আগেভাগেই লবঙ্গ ছড়িয়ে নিন। ন্যাপথলিন কিংবা নিমপাতাও ব্যবহার করতে পারেন। তাতে পোকামাকড়ের পাশাপাশি ভ্যাপসা গন্ধ থেকেও মিলতে পারে রেহাই।

বৃষ্টিবাদলার দিনে সবসময় বাড়ি থেকে বের হতে সমস্যা হতে পারে। কিন্তু বৃষ্টির দিনে সন্ধেবেলা টুকিটাকি খাবারদাবার খেতে মন চাইতেই পারে। সেই সময় বাড়িতে জিনিসপত্র না থাকলেই মুশকিল। তাই বৃষ্টির দিনে বাড়িতে প্রয়োজনের তুলনায় একটু বেশি জিনিসপত্র কিনে রাখুন।