• বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ১৪ ১৪৩০

  • || ১৬ শা'বান ১৪৪৫

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
পুলিশ জনগণের বন্ধু, সে কথা মাথায় রেখেই দায়িত্ব পালন করতে হবে অপরাধের ধরন বদলাচ্ছে, পুলিশকেও সেভাবে আধুনিক হতে হবে পুলিশ সপ্তাহ শুরু, উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী আইনশৃঙ্খলা সমুন্নত রাখতে পুলিশ নিরলস প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে দেশপ্রেম ও পেশাদারিত্বের পরীক্ষায় বারবার উত্তীর্ণ হয়েছে পুলিশ জনগণের আস্থা অর্জন করলে ভোট পাবেন: জনপ্রতিনিধিদের প্রধানমন্ত্রী জনপ্রতিনিধির মাধ্যমে উন্নয়ন কাজের ব্যবস্থাটা আমরা নিয়েছিলাম কেউ যেন ভুয়া ক্লিনিক-চিকিৎসকের দ্বারা প্রতারিত না হন: রাষ্ট্রপতি স্থানীয় সরকার বিভাগে বাজেট বরাদ্দ ৬ গুণ বেড়েছে: প্রধানমন্ত্রী স্থানীয় সরকারকে মাটি-মানুষের সঙ্গে নিবিড় সম্পর্ক গড়তে হবে শবে বরাতের মাহাত্ম্যে উদ্বুদ্ধ হয়ে দেশের কাজে আত্মনিয়োগের আহ্বান সমাজের অসহায়, দরিদ্র মানুষের সহায়তায় এগিয়ে আসতে হবে দেশের মানুষের জন্য ন্যায়বিচার নিশ্চিত করতে হবে বিচারকদের ক্ষমতার অপব্যবহার রোধকল্পে খেয়াল রাখার আহ্বান মিউনিখ সফরে বাংলাদেশের অঙ্গীকার বলিষ্ঠরূপে প্রতিফলিত হয়েছে পবিত্র রমজানে নিত্যপণ্যের সংকট হবে না: প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্টের অভিনন্দন প্রতিবেশীদের সঙ্গে সুসম্পর্ক রেখেই সামুদ্রিক সম্পদ আহরণের আহ্বান সমুদ্রসীমার সম্পদ আহরণ করে কাজে লাগানোর তাগিদ প্রধানমন্ত্রীর ২১ বছর সমুদ্রসীমার অধিকার নিয়ে কেউ কথা বলেনি: শেখ হাসিনা

রান্নাঘরের কোন আবর্জনা কীভাবে ফেলবেন?

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ১০ জানুয়ারি ২০২৩  

রান্নাঘরের আবর্জনা কীভাবে নিষ্পত্তি করবেন তা অনেকেরই জানা নেই। আর এ কারণে স্বাস্থ্যগত নানা সমস্যার ঝুঁকি বাড়ে। বেশিরভাগ মানুষই রান্নাঘরের আবর্জনা তাৎক্ষণিক ফেলে না দিয়ে জমিয়ে রাখেন।

আবার অনেকে এসব আবর্জনা ডাস্টবিনে না রেখে সাধারণ পলিথিনে রাখেন ও পরে ফেলে দেন। আবর্জনা নিষ্পত্তির সঠিক উপায় কিন্তু এটি নয়। আবর্জনা নিষ্পত্তিতে অবশ্যই ঢাকনাযুক্ত ডাস্টবিন ব্যবহার করতে হবে, পাশাপাশি পচনশীল ও অপচনশীল আবর্জনা আলাদা করে ভিন্ন ভিন্ন পাত্রে রাখতে হবে।

পরে কালো পলিথিনে মুড়িয়ে ফেলে দিতে হবে নির্দিষ্ট ডাস্টবিনে। চলুন জেনে নেওয়া যাক রান্নাঘরের আবর্জনা নিষ্পত্তির সঠিক উপায় সম্পর্কে-

১. রান্নাঘরের আবর্জনা যেন যথাসম্ভব দ্রুত নির্দিষ্ট ঢাকনাযুক্ত ডাস্টবিনে ফেলতে হবে।

২. তরল বর্জ্য নর্দমা দিয়ে বের করে দিতে হবে, আর কঠিন বর্জ্য যথাযথভাবে ডাস্টবিনে ফেলতে হবে।

৩. পা-চালিত ও ঢাকনাযুক্ত ডাস্টবিন ব্যবহার করতে হবে ও বর্জ্য যাতে ছড়িয়ে না পড়ে সেজন্য কালো পলিথিন ব্যাগ বা পাটের ব্যাগ ব্যবহার করতে হবে।

৪. আবর্জনা ঢাকনাবিহীনডাস্টবিনে রাখবেন না, এতে দুর্গন্ধ ছড়াবে, পোকামাকড় ও কীটপতঙ্গ আকর্ষিত হবে ও রোগজীবাণু ছড়াবে।

৫. ডাস্টবিনে ময়লা আবর্জনা ফেলতে আলাদা পলিথিন ব্যবহার করুন।

৬. ডাস্টবিনের নিচের মেঝে ডিটারজেন্ট দিয়ে নিয়মিত পরিষ্কার রাখতে হবে।

৭. পচনশীল বর্জ্য যেমন- শাকসবজি, ফলের খোসা, প্লেটের অবশিষ্ট খাবার ইত্যাদি ভিন্ন ডাস্টবিনে রাখবেন।

৮. অপচনশীল বর্জ্য যেমন- কাগজ, কাচের পাত্র, প্লাস্টিক, ধাতু ইত্যাদি ফেলতে পৃথক পৃথক ডাস্টবিন ব্যবহার করুন।

৯. নালা নর্দমায় প্লাস্টিক, পলিথিস, কাচ ও কঠিন বর্জ্য ফেলবেন না।

১০. রান্নাঘরের বর্জ্যকে জৈব সারে রূপান্ত করতে পারেন।

১১. আর পুনঃব্যবহার উপযোগী কাগজ, কাচ ও প্লাস্টিকের জিনিসপত্র ভিন্ন ভিন্ন ডাস্টবিনে সংরক্ষণ করে তা সংশ্লিষ্ট সংগ্রাহকদের দিতে পারেন।