• শুক্রবার   ০২ ডিসেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৭ ১৪২৯

  • || ০৭ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
বাংলাদেশ সবসময় ভারতের কাছ থেকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার পায় কর ব্যবস্থাপনা তথ্যপ্রযুক্তি নির্ভর করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী ১০ টাকায় টিকিট কেটে চোখ পরীক্ষা করালেন প্রধানমন্ত্রী শিক্ষা ব্যবস্থা যাতে পিছিয়ে না যায় সে ব্যবস্থা নিচ্ছি প্রধানমন্ত্রীর কাছে এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল হস্তান্তর ব্যাংক খাতের পরিস্থিতি জানানোর নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর ১০ ডিসেম্বর বিএনপির মহাসমাবেশ, পরিবহন ধর্মঘট না ডাকার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রী প্লিজ যুদ্ধ থামান, সংঘাত থামাতে সংলাপ করুন: শেখ হাসিনা হানিফের সংগ্রামী জীবন নতুন প্রজন্মের রাজনৈতিক কর্মীদের দেশপ্রেম ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উজ্জীবিত করবে মোহাম্মদ হানিফ ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের একজন পরীক্ষিত নেতা সংঘাত-দুর্যোগে নারীদের দুর্দশা বহুগুণ বাড়ে: প্রধানমন্ত্রী সচিবদের যেসব নির্দেশনা দিলেন প্রধানমন্ত্রী জিয়া-খালেদা-তারেক খুনি: প্রধানমন্ত্রী জেলা-উপজেলা পর্যায়ে কর্মজীবী মহিলা হোস্টেল হবে: প্রধানমন্ত্রী সূচকের ওঠানামায় পুঁজিবাজারে চলছে লেনদেন দুপুরে সচিবদের নিয়ে বৈঠকে বসছেন প্রধানমন্ত্রী স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনে ডা. মিলনের আত্মত্যাগ নতুন গতি সঞ্চার করে ডা. মিলন এক উজ্জ্বল নক্ষত্র: রাষ্ট্রপতি মিছিল-মিটিংয়ে আপত্তি নেই, মানুষের ওপর হামলায় সহ্য করবো না ‘যারা গ্রেনেড দিয়ে আমাকে হত্যার চেষ্টা করেছে, তাদের সঙ্গে আলোচনা?

ধানক্ষেতে মিললো অসুস্থ হিমালয়ের শকুন

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ১৭ জানুয়ারি ২০২২  

ভোলা প্রতিনিধিঃ ভোলা সদর উপজেলার ধানক্ষেত থেকে একটি অসুস্থ বিরল হিমালয়ান গ্রিফন প্রজাতির শকুন উদ্ধার করা হয়েছে। রবিবার (১৬ জানুয়ারি) দুপুরে উপজেলার পূর্ব ইলিশা ইউনিয়ন ৯নং ওয়ার্ড গুপ্তমুন্সি গ্রাম থেকে ওই শকুনটি উদ্ধার করা হয়। শকুনটি দেখার জন্য পুরো এলাকায় ভীড় জমে যায়। পরে খবর পেয়ে বন বিভাগগের কর্মকর্তারা শকুনটি উদ্ধার করেন। পুর্নাঙ্গ বয়সের এ শকুনটির উচ্চতা দেড় ফুট এবং ওজন ৫ কেজি। খাবারের সন্ধানে শকুনটি লোকালয়ে চলে এসেছিলো বলে জানিয়েছে বন বিভাগ।

স্থানীয় মো.সেলিম জানান, আজ দুপুরে গুপ্তমুন্সি ধানক্ষেত কাজ করার সময় হঠাৎ আকাশ থেকে এই শকুনটি মাটিতে লুটিয়ে পরে। পরে আমি কাছে গিয়ে দেখি শকুনটি দূর্বল ভালো করে দাড়াতেও পারছে না। পরে আমি এটাকে ধানখেত থেকে রাস্তায় নিয়ে আসি। এবং বন বিভাগের কর্মকর্তাদের সাথে যোগাযোগ করলে তারা এসে নিয়ে যায়।

এ বিষয়ে ভোলা উপকূলীয় বন বিভাগের বন্য প্রানী ও জীব বৈচিত্র সংরক্ষন কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম জানান, শকুনটি হিমালয়ে বসবাস করে। এটিকে গ্রিফন শকুন বলা হয়। খাদ্যের সন্ধানে লোকালয়ে চলে এসছে শকুনটি এটি বর্তমানে অসুস্থ্য। শকুনটিকে স্যালাইন পানি সহ দূর্বলতা কাটানোর জন্য ঔষধ খাওয়ানো হয়েছে।পাশাপাশি চিকিৎসার জন্য  জেলা পশু হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। বন ববিভাগের তত্ত্বাবধানে শকুনটির চিকিৎসা চলছে। এটি সুস্থ্য হলে বনে অবমুক্ত করা হবে।