• রোববার   ২২ মে ২০২২ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৭ ১৪২৯

  • || ১৮ শাওয়াল ১৪৪৩

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
রূপপুর মেটাবে বিদ্যুতের চাহিদা, দেবে লাভও দ্রব্যমূল্য নিয়ে ৩ দিনের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে নির্দেশ বৈশ্বিক সংকট মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রীর ৪ দফা প্রস্তাব অবিলম্বে বৈশ্বিক সরবরাহ চেইন স্বাভাবিক করার আহ্বান পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র পরিবেশবান্ধব: প্রধানমন্ত্রী খালেদাকে পদ্মায় ফেলতে আর ইউনূসকে চুবিয়ে তুলতে বললেন শেখ হাসিনা কক্সবাজার হবে আন্তর্জাতিক বিমান চলাচলের রিফুয়েলিং পয়েন্ট কক্সবাজারে যত্রতত্র স্থাপনা নির্মাণ না করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রী কক্সবাজারে কউক’র নতুন ভবনের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী পদ্মা সেতুর টোল নির্ধারণ করে প্রজ্ঞাপন জারি আওয়ামী লীগ সরকার আছে বলেই সবকিছু নিয়ন্ত্রণ করতে পারছে- প্রধানমন্ত্রী ওপেনিংয়ে চতুর্থ সেরা জুটি গড়ে ফিরলেন জয়, তামিমের সেঞ্চুরি নিত্যপণ্যের দাম কেন চড়া, জানালেন প্রধানমন্ত্রী স্বদেশ প্রত্যাবর্তন: শেখ হাসিনা দেশের মানুষের শেষ ভরসাস্থল শেখ হাসিনা বাঙালি জাতির নিরাপদ আশ্রয়স্থল শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন ইতিহাসে মাইলফলক: রাষ্ট্রপতি চার দশকেরও বেশি সময় শেখ হাসিনার সফল নেতৃত্বে আ.লীগ উৎপাদন বাড়ানোর পাশাপাশি খাদ্য সাশ্রয় করুন: প্রধানমন্ত্রী সবাই স্বাধীনভাবে সরকারের সমালোচনা করতে পারে: প্রধানমন্ত্রী টাকা অপচয় করা যাবে না: প্রধানমন্ত্রী

তজুমদ্দিনে নিষিদ্ধ সময়ে মাছ ধরায় ১০ জেলের জরিমানা

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ১২ মার্চ ২০২২  

ভোলা প্রতিনিধিঃ ভোলার তজুমদ্দিন সংলগ্ন মেঘনা নদীতে নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ইলিশ মাছ ধরার অপরাধে উপজেলা মৎস্য দপ্তর ও পুলিশ অভিযান চালিয়ে ১০ জেলেকে আটক করে। পরে আটককৃত জেলেদের ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে ৩৩ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

উপজেলা মৎস্য অফিস সুত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে তজুমদ্দিন থানা পুলিশের সহযোগীতায় উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. আমির হোসেনের নেতৃত্বে একটি টিম মেঘনার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করেন। এসময় নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মাছ শিকার করার দায়ে ১০ জেলে, ১২ টি বেহুন্দি জাল ও ২টি মাছ ধরার নৌকা আটক করা হয়। আটক জেলেদের বাড়ি পাশ্বতর্বী উপজেলা বোরহানউদ্দিনের বিভিন্ন এলাকায় বলে জানা গেছে।

শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০ টায় আটক জেলেদের উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা মরিয়ম বেগম ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে ৯ জনকে ৩৩ হাজার টাকা জরিমানা করে এবং অপ্রাপ্তবয়ষ্ক হওয়ায় অপর একজনকে মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়।  

জব্দকৃত ১২টি বেহুন্দি জাল শশীগঞ্জ ঘাটে জনসম্মুখে আগুনে পুড়ে ধ্বংস করা হয় এবং দুইটি নৌকা পুলিশ হেফাজতে রয়েছে।

স্থানীয় জেলেদের অভিযোগ, বোরহানউদ্দিন উপজেলার বিভিন্ন ঘাটের জেলেরা সরকারের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে প্রতিদিন মেঘনায় জাল ফেলে ধ্বংস করছে ইলিশের অভয়াশ্রম। এরসাথে মির্জাকালু, হাকিমুদ্দিন ও চেয়ারম্যান ঘাটের চিহ্নিত কয়েকজন আড়তদার জড়িত আছে। এ ব্যাপারে বোরহানউদ্দিন পুলিশ ও মৎস দপ্তর কোন পদক্ষেপ নিচ্ছে না বলেও অভিযোগ রয়েছে।

এব্যাপরে উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. আমির হোসেন বলেন, নিষিদ্ধ এসময়ে যাতে জেলেরা নদীতে মাছ ধরতে না পারে সেজন্য আমাদের এই অভিযান অব্যাহত থাকবে। স্থানীয় অধিকাংশ জেলে নদীতে মাছ শিকারে না গেলেও পাশ্ববর্তী  উপজেলার অসংখ্য জেলে আমাদের অভিযানে ইতিমধ্যে আটক হয়েছে।