• মঙ্গলবার   ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১ ||

  • আশ্বিন ৫ ১৪২৮

  • || ১২ সফর ১৪৪৩

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
নিউইয়র্কে পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী টিকা নেওয়ার পর খোলার সিদ্ধান্ত নিজ নিজ বিশ্ববিদ্যালয় নিতে পারবে বঙ্গবন্ধু ভাষণের দিনকে এবারও ‘বাংলাদেশি ইমিগ্রান্ট ডে’ ঘোষণা ফিনল্যান্ডে পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী শীর্ষ অর্থনীতির দেশগুলোর অংশগ্রহণ চান প্রধানমন্ত্রী `লাশের নামে একটা বাক্সো সাজিয়ে-গুজিয়ে আনা হয়েছিল` টকশোতে কে কী বলল ওসব নিয়ে দেশ পরিচালনা করি না: প্রধানমন্ত্রী উপহারের ঘরে দুর্নীতি তদন্তে দুদককে নির্দেশ দিলেন প্রধানমন্ত্রী জিয়াকে আসামি করতে চেয়েছিলাম: প্রধানমন্ত্রী এটা তো দুর্নীতির জন্য হয়নি, এটা কারা করল? ওজোন স্তর রক্ষায় সরকারের পাশাপাশি বেসরকারি খাতকেও এগিয়ে আসতে হবে ওজোন স্তর রক্ষায় সিএফসি গ্যাসনির্ভর যন্ত্রের ব্যবহার কমাতে হবে ১২ বছরের শিক্ষার্থীরা টিকার আওতায় আসছে: সংসদে প্রধানমন্ত্রী ২৪ সেপ্টেম্বর জাতিসংঘে ভাষণ দিবেন প্রধানমন্ত্রী প্রতিদিন প্রতি মুহূর্তে শোক প্রস্তাব নিতে চাই না: প্রধানমন্ত্রী এই সংসদে একের পর এক সদস্য হারাচ্ছি: প্রধানমন্ত্রী সবাই স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে শিক্ষার রূপরেখা সাজানোর নির্দেশ শিক্ষা কার্যক্রমকে সময়োপযোগী করা অপরিহার্য: প্রধানমন্ত্রী আগেরবার সব ভালো কাজের জন্য মামলা খেয়েছিলাম: প্রধানমন্ত্রী

গোলক ধাঁধায় বিএনপি, নেই কার্যকর কোনো কর্মসূচি

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ২ আগস্ট ২০২১  

করোনার এ দুর্যোগে শুরু থেকেই  অলস সময় পার করছে বিএনপি। জনকল্যাণকর কোনো কর্মসূচি তো দূরের কথা তাদের দলীয় তেমন কর্মকাণ্ডই চোখে পড়েনি। এমন পরিস্থিতিতে বিএনপির প্রতি জনগণের অবশিষ্ট জনপ্রিয়তা ও বিশ্বাসযোগ্যতা তলানিতে ঠেকেছে।

এদিকে মহামারির এ পরিস্থিতিতে সাধারণ মানুষদের কোনো সহায়তা না করে লকডাউন শেষে খালেদা জিয়ার মুক্তিসহ বিভিন্ন দাবি আদায়ে আন্দোলনের আভাস দেওয়া হয়েছিল দলের পক্ষ থেকে। সম্প্রতি স্থায়ী কমিটির এক বৈঠকে এখনই কোনো আন্দোলনের দিকে না গিয়ে সাধারণ কর্মসূচি স্থির করা হয়েছে।

গুলশানে বিএনপি চেয়ারপার্সনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের স্থায়ী কমিটির ওই বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে, আরো এক মাস পর করোনা পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হলে মাঠের কর্মসূচিতে যাবে বিএনপি। এরই ধারাবাহিকতায় রাজধানীতে শোভাযাত্রা, সারাদেশে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করার পাশাপাশি বিএনপি খালেদা জিয়ার মুক্তি ও গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে চলমান বিভাগীয় সমাবেশ করা হবে।

বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে, আন্দোলন ও সহিংসতার কারণে এ পর্যন্ত বিএনপির যে ক্ষতি হয়েছে, সেদিকে আর যাবে না দলটি। কেননা বিগত সময়ে বিভিন্ন ইস্যুতে আন্দোলন-সহিংসতার দিকে গিয়ে লাভের বদলে লোকসানই বেশি হয়েছে। আন্তর্জাতিক মহলে সন্ত্রাসী দল হিসেবেও বিবেচিত হয়েছে বিএনপি। তাই এবার নিয়মতান্ত্রিক কর্মসূচিতেই আগ্রহী বিএনপি।

এ প্রসঙ্গে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বৈঠকে উপস্থিত থাকা বিএনপির স্থায়ী কমিটির এক সদস্য বলেন, বৈঠকটি তেমন ফলপ্রসূ হয়নি। আমি ব্যক্তিগতভাবে বৈঠকটিকে দায়সারা বলেই অভিহিত করবো।

তিনি বলেন, যেখানে কোরবানির ঈদের আগের বৈঠকে সিদ্ধান্ত হলো লকডাউন শেষ হলে আন্দোলন হবে। সেখানে ঈদের পরে এসে সাধারণ কর্মসূচির ঘোষণা আসছে। ফলে দলীয় সিদ্ধান্ত কোনো এক বৃত্তের গোলক ধাঁধায় আটকে আছে, যা পরিষ্কারভাবে বোঝা যাচ্ছে না। এ কর্মসূচি দিয়ে এতদিন কিছুই হয়নি, এবারও হবে না বলে আমি মনে করি।