• শুক্রবার   ১৯ আগস্ট ২০২২ ||

  • ভাদ্র ৩ ১৪২৯

  • || ২০ মুহররম ১৪৪৪

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করলেন জাতিসংঘ মানবাধিকার প্রধান বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর আ. লীগের নেতারা কী করেছিলেন: প্রধানমন্ত্রী সুশীল বাবু মইনুল খুনিদের নিয়ে দল গঠন করে: প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু হত্যায় জড়িতরা আজ মানবাধিকারের কথা বলে: প্রধানমন্ত্রী ভারত পারলে আমরাও রাশিয়া থেকে তেল কিনতে পারবো: প্রধানমন্ত্রী ‘ষড়যন্ত্র প্রতিহত করে বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচারের রায় কার্যকর করেছি’ খবরদার আন্দোলনকারীদের ডিস্টার্ব করবেন না: প্রধানমন্ত্রী জাতির পিতার মৃত্যু নেই প্রজন্ম থেকে প্রজন্মান্তরে বঙ্গবন্ধু আমাদের রোল মডেল শোক দিবসে বঙ্গভবনে বিশেষ দোয়ার আয়োজন রাষ্ট্রপতির টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানোর বিষয়ে পরিষ্কার ব্যাখ্যার নির্দেশ বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল ট্রাস্টের সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত মানবাধিকার কমিশনকে যথাযথভাবে দায়িত্ব পালনের নির্দেশ রাষ্ট্রপতির ৪০০তম ওয়ানডে খেলার অপেক্ষায় বাংলাদেশ জ্বালানি নিরাপত্তা: বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনার অবদান রাজনৈতিক সিদ্ধান্তে বঙ্গমাতার মনোভাব প্রতিফলিত হয়েছে বঙ্গমাতার সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা স্বাধীনতার সংগ্রামে বঙ্গবন্ধুর সারথি ছিলেন আমার মা: প্রধানমন্ত্রী বঙ্গমাতা কঠিন দিনগুলোতে ছিলেন দৃঢ় ও অবিচল: রাষ্ট্রপতি

বিএনপি ওয়ার্ড সম্মেলনে মারামারি

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ৩ জুলাই ২০২২  

বিএনপির ঢাকা মহানগর উত্তরের ওয়ার্ড কমিটি গঠনে আর্থিক লেনদেন এবং আঞ্চলিক সম্পর্ককে প্রাধান্য দেয়ার অভিযোগে হামলার ঘটনা ঘটেছে। নিজেদের মধ্যেই এ মারামারিতে জড়ায় দলটির নেতাকর্মীরা।

শনিবার (২ জুলাই) মোহাম্মদপুর থানার ২৯, ৩১, ৩২, ৩৩ ও ৩৪ নং ওয়ার্ডে সম্মেলন হয়। বছিলা রোডের নীরা কমিউনিটি সেন্টারে এ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সম্মেলনের শেষ মুহূর্তে আর্থিক লেনদেন এবং আঞ্চলিক সম্পর্ককে প্রাধান্য দেয়ার অভিযোগ তুলে সন্ধ্যার দিকে বিক্ষুব্ধ একটি গ্রুপ প্রতিপক্ষের ওপর হামলা চালায়।

এ সময় মহানগর উত্তরের আহ্বায়ক আমান উল্লাহ আমান ও সদস্যসচিব আমিনুল হককে লাঞ্ছিত করে। এ ঘটনায় উভয় পক্ষের কয়েকজন হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন।

জানা গেছে, ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির ওয়ার্ড সম্মেলনে যাদের বাড়ি ভোলা তারা কাউন্সিলে পাস করে যাচ্ছে। আবার যারা অর্থ দিচ্ছে তারাও কমিটিতে জায়গা পাচ্ছে। এমন পরিস্থিতিতে স্থানীয় বিএনপি নেতারা আমানুল্লাহ আমান এবং সদস্যসচিব আমিনুল হকের বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করে স্টেজ ভাঙচুর শুরু করে। এ সময় চেয়ারও ভাঙচুর করতে থাকে কেউ। এই সুযোগে একটি দল বাইরে থাকা গাড়ির গ্লাসও ভেঙে ফেলে।

ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির দফতরের দায়িত্বে থাকা আবদুর রাজ্জাক গণমাধ্যমকে বলেন, স্থানীয় নেতাদের নিজেদের ব্যক্তিগত বিষয় নিয়ে হট্টগোল হয়েছিল। পরে আমানুল্লাহ আমান সবাইকে নিয়ন্ত্রণ করেন।

একই কথা জানান আহ্বায়ক আমানুল্লাহ আমান। তিনি বলেন, কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। আমরা সম্মেলন শেষ করে চলে এসেছি।