• বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৫ ১৪৩১

  • || ১১ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
শেখ হাসিনার ভারত সফর: আঞ্চলিক ভূ-রাজনীতি নিয়ে আলোচনা হতে পারে ফিলিস্তিনসহ দেশের সুবিধাবঞ্চিত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান আসুন ত্যাগের মহিমায় দেশ ও মানুষের কল্যাণে কাজ করি: প্রধানমন্ত্রী তারেকসহ পলাতক আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে কোরবানির পশু বেচাকেনা এবং ঘরমুখো মানুষের নিরাপত্তার নির্দেশ তিস্তা মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নে চীনের কাছে ঋণ চেয়েছি গ্লোবাল ফান্ড, স্টপ টিবি পার্টনারশিপ শেখ হাসিনাকে বিশ্বনেতৃবৃন্দের জোটে চায় শিশুর যথাযথ বিকাশ নিশ্চিতে সকল খাতকে শিশুশ্রমমুক্ত করতে হবে শিশুশ্রম নিরসনে প্রত্যেককে আরো সচেতন হতে হবে : প্রধানমন্ত্রী ব্যবসায়িদের প্রতি নিয়ম নীতি মেনে কার্যক্রম পরিচালনার আহ্বান বিনামূল্যে সরকারি বাড়ি গৃহহীনদের আত্মমর্যাদা এনে দিয়েছে প্রধানমন্ত্রীর জিসিএ লোকাল অ্যাডাপটেশন চ্যাম্পিয়নস অ্যাওয়ার্ড গ্রহণ আশ্রয়ণের ঘর মানুষের জীবন বদলে দিয়েছে: প্রধানমন্ত্রী ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত ঘরবাড়ি তৈরি করে দেব : প্রধানমন্ত্রী নতুন সেনাপ্রধান ওয়াকার-উজ-জামান প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর পাচ্ছে সাড়ে ১৮ হাজার পরিবার শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস আজ শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করলেন সোনিয়া গান্ধী মোদীকে বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ জানালেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শেখ হাসিনা-মোদি বৈঠকে দু’দেশের সম্পর্ক আগামীতে আরো দৃঢ় হবে

তাকবিরে তাহরিমায় হাত না ওঠালে কি নামাজ হবে?

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩  

যে তাকবিরের মাধ্যমে নামাজ শুরু করা হয় ওই তাকবিরকে তাকবিরে তাহরিমা বলে। এই তাকবিরের মাধ্যমে নামাজ আদায়কারী নামাজে প্রবেশ করে এবং নামাজের বাইরের সব কাজকর্ম হারাম বা নিষিদ্ধ হয়ে যায়। তাকবিরে তাহরিমার মাধ্যমে নামাজ শুরু করা ফরজ। রাসুল (সা.) বলেন,

مِفْتَاحُ الصَّلاَةِ الطُّهُورُ وَتَحْرِيمُهَا التَّكْبِيرُ وَتَحْلِيلُهَا التَّسْلِيمُ
সালাতের চাবি হল পবিত্রতা। তাকবিরে তাহরিমা নামাজের বাইরের সব কাজ কাজ হারাম করে দেয় আর সালাম তা হালাল করে। (তিরমিজি: ২৩৮)

তাকবিরে তাহরিমা বলার সময় হাত ওঠানো সুন্নাত। ইমাম নববির মতে তাকবিরে তাহরিমার সময় হাত ওঠানো সুন্নাত হওয়ার ব্যাপারে উম্মাহর আলেমদের ইজমা বা ঐকমত্য রয়েছে। তবে এটা ওয়াজিব নয়, তাই ছেড়ে দিলে নামাজ বাতিল হয়ে যাবে না। যদিও নামাজের একটি গুরুত্বপূর্ণ সুন্নাত পালনের সওয়াব থেকে নামাজ আদায়কারী বঞ্চিত হবে।

রাসুল (সা.) সব সময় তাকবিরে তাহরিমা বলার সময় হাত ওঠাতেন। আবু হোরায়রা (রা.) বলেন,

كَانَ رَسُولُ اللهِ صلى الله عليه وسلم إِذَا دَخَلَ فِي الصَّلَاةِ رَفَعَ يَدَيْهِ مَدًّا

রাসুল (সা.) যখন নামাজ শুরু করতেন, উভয় হাত প্রসারিত করে ওঠাতেন। (সুনান তিরমিজি: ২৩৯)

তাই নামাজ শুরু করার সময় দুই হাত উঠিয়েই তাকবির বলা উচিত। তবে কখনও যদি তাড়াহুড়া বা অন্য কোনো কারণে কেউ হাত না ওঠাতে পারে বা ভুলে যায়, তাহলে নামাজ হয়ে যাবে এবং এই ভুলের জন্য সাহু সিজদা দেওয়ারও প্রয়োজন নেই। যেহেতু তাকবিরে তাহরিমায় হাত ওঠানো সুন্নাত, ফরজ নয়, ওয়াজিবও নয়।