• শনিবার ১৩ জুলাই ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ২৮ ১৪৩১

  • || ০৫ মুহররম ১৪৪৬

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
টেকসই উন্নয়নে পরিকল্পিত ও দক্ষ জনসংখ্যার গুরুত্ব অপরিসীম বাংলাদেশে আরো বিনিয়োগ করতে চায় চীন: শি জিনপিং চীন সফর শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী চীন সফর সংক্ষিপ্ত করে আজ দেশে ফিরছেন প্রধানমন্ত্রী ঢাকা-বেইজিং ৭ ঘোষণাপত্র, ২১ চুক্তি সই চীনের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে শেখ হাসিনা রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনে চীনের প্রতি সহযোগিতার আহ্বান বাংলাদেশে বিনিয়োগের এখনই উপযুক্ত সময় তিয়েনআনমেন স্কয়ারে চীনা বিপ্লবীদের প্রতি শেখ হাসিনার শ্রদ্ধা চীন-বাংলাদেশ হাত মেলালে বিশাল কিছু অর্জন সম্ভব: প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশে বিনিয়োগের এখনই সময়: চীনা ব্যবসায়ীদের প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী বেইজিং পৌঁছেছেন, শি জিংপিংয়ের সঙ্গে বৈঠক আজ দ্বিপক্ষীয় সফরে চীনের পথে প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী চীন সফরে যাচ্ছেন আজ সর্বজনীন পেনশনে যুক্ত হতে নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান শেখ হাসিনার পড়াশোনা নষ্ট করে কোটাবিরোধী আন্দোলনের কোনো যৌক্তিকতা নেই পিজিআরকে ‘চেইন অব কমান্ডে’র প্রতি আস্থাশীল থেকে অর্পিত দায়িত্ব সুষ্ঠুভাবে পালনের নির্দেশ রাষ্ট্রপতির টেকসই উন্নয়ন ত্বরান্বিতে কৃষি ও কৃষকের উন্নয়ন নিশ্চিত করতে হবে সরকারের কৃষিবান্ধব নীতির ফলে টেকসই কৃষি প্রবৃদ্ধি নিশ্চিত হয়েছে এমডি পদের জন্য এত লালায়িত কেন, কী মধু আছে: প্রধানমন্ত্রী

ভালো কাজ ডান দিক থেকে শুরু করা সুন্নাত

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩  

আয়েশা (রা.) বলেন, রাসুল (সা.) নিজের সব কাজ যথাসম্ভব ডানদিক থেকে শুরু করতে পছন্দ করতেন। পবিত্রতা অর্জন, মাথা আঁচড়ানো, জুতা পরিধান ইত্যাদি কাজ তিনি ডান দিক থেকে শুরু করতেন। (সহিহ বুখারি, সহিহ মুসলিম)

শিক্ষা ও নির্দেশনা

১. যে কোনো ভালো কাজ ডান দিক থেকে শুরু করা উত্তম। নবিজি (সা.) তার ভালো কাজগুলো ডান দিক থেকে শুরু করতেন। আয়েশা (রা.) এ হাদিসে তিনটি কাজের কথা উল্লেখ করেছেন। এক. পবিত্রতা অর্জন বা অজু করার সময় ডান দিক থেকে শুরু করা অর্থাৎ ডান হাত ও ডান পা আগে ধোয়া সুন্নাত। দুই. মাথা আঁচড়ানো ডান দিক থেকে শুরু করা সুন্নাত। তিন. জুতা পরিধানের সময় ডান পায়ে আগে জুতা পরিধান করা সুন্নাত।

এ ক্ষেত্রে মূলনীতি হলো যে কোনো সুন্দর ও ভালো কাজ ডান হাত দিয়ে করা বা ডান দিক থেকে শুরু করা উত্তম। খাওয়া, পান করা, কারো কাছ থেকে কিছু নেওয়া বা দেওয়া, মুসাফাহা ইত্যাদি কাজ ডান হাতে করা মুস্তাহাব। কাপড় পরিধান করা, মসজিদে প্রবেশ করা, গোঁফ খাটো করা, মাথা মুণ্ডানো, নামাজে সালাম দেওয়া ইত্যাদি কাজ ডান দিক থেকে শুরু করা মুস্তাহাব। এর বিপরীত কাজগুলো বাম হাতে বা বাম দিক থেকে শুরু করা ‍মুস্তাহাব। ইস্তেনজা, নাক পরিস্কার করা বাম হাতে করা মুস্তাহাব। বাথরুমে প্রবেশ করা, মসজিদ থেকে বের হওয়া, জামা খোলা ইত্যাদি কাজগুলো বাম দিক থেকে শুরু করা মুস্তাহাব।

২. এ হাদিস থেকে বোঝা যায় গোসল করার সময় শরীরের ডান দিক থেকে শুরু করা সুন্নাত। এ ব্যাপারে ফোকাহায়ে কেরামের মধ্যে কোনো দ্বিমত নেই। চার মাজহাবই এটাকে মুস্তাহাব বলে। ইমাম নববী (রহ.) গোসলের সুন্নাত উল্লেখ করতে গিয়ে বলেন, গোসলের অন্যতম সুন্নাত হলো ডান দিক থেকে শুরু করা, প্রথম ডান পাশে পানি ঢালা, তারপর বামপাশে পানি ঢালা। এটা মুস্তাহাব হওয়ার ব্যাপারে সবাই একমত। উম্মে আতিয়্যা (রা.) থেকে বর্ণিত রয়েছে, নবিজি (সা.) তার মেয়ের গোসলের ব্যাপারে তাদের বলেছিলেন, তোমরা তার ডান দিক থেকে এবং ডান দিকের অজুর অঙ্গগুলো থেকে গোসল করানো শুরু করবে। (সহিহ বুখারি, সহিহ মুসলিম)

৩. এ হাদিস থেকে বোঝা যায় জীবনে সব ব্যাপারেই ইসলামি শরিয়তের দিক-নির্দেশনা ও বিধান রয়েছে। যে বিষয়গুলোকে সাধারণত মানুষ তেমন গুরুত্ব দেয় না, সেই সব বিষয়েও শরিয়তের নির্দেশনা মেনে ও নবিজিকে (সা.) অনুসরণ করে সওয়াব অর্জনের সুযোগ রয়েছে।