• বৃহস্পতিবার   ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ||

  • মাঘ ২০ ১৪২৯

  • || ১০ রজব ১৪৪৪

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
উন্নত-সমৃদ্ধ দেশ গড়তে কৃষি উন্নয়নের বিকল্প নেই: প্রধানমন্ত্রী ক্রীড়া শিক্ষায় বাস্তবমুখী পদক্ষেপ নিয়েছি: প্রধানমন্ত্রী নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিতে কাজ করছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী জনস্বাস্থ্য নিশ্চিতে নিরাপদ ও পুষ্টিকর খাদ্যের বিকল্প নেই জনগণকে বিশ্বাস করি, তারা যদি চায় আমরা থাকবো: প্রধানমন্ত্রী ২০২২-২৩ অর্থবছরে ১০ বিলিয়ন ডলারের বেশি রেমিট্যান্স এসেছে ভাষা-সাহিত্য চর্চাও ডিজিটাল করার পরামর্শ প্রধানমন্ত্রীর রাষ্ট্রপতির সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ মানহীন শিক্ষায় উচ্চশিক্ষিত বেকার বাড়ছে: রাষ্ট্রপতি গণতান্ত্রিক ধারাকে বাধাগ্রস্ত করতে চায় এক শ্রেণির বুদ্ধিজীবী মুসলিম উম্মাহকে ফিলিস্তিনের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান দেশের ব্যাপক উন্নয়ন বিবেচনায় নিতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান গণতান্ত্রিক ধারা অব্যাহত থাকলেই মানুষের উন্নতি হয়: প্রধানমন্ত্রী আমি জোর করে দেশে ফিরেছিলাম, আ.লীগ পালায় না: শেখ হাসিনা আজ ১১ প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী ১-৭ মার্চ মোবাইলে কল করলেই শোনা যাবে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ পুলিশি সেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিন: প্রধানমন্ত্রী সন্ত্রাস রুখে দিতে প্রশংসনীয় ভূমিকা রেখে যাচ্ছে পুলিশ সারদায় কুচকাওয়াজে প্রধানমন্ত্রীকে অভিবাদন বাংলাদেশ পুলিশ শান্তি-শৃঙ্খলা রক্ষায় নিরলসভাবে কাজ করছে

আজ দ্বিতীয় ওয়ানডে, ভারতের বিপক্ষে আরেকটি সিরিজ জয়ের হাতছানি

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ৭ ডিসেম্বর ২০২২  

আরেকটি ইতিহাস ডাকছে বাংলাদেশকে। মিরপুরে ভারতের বিপক্ষে আজ (বুধবার) সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডে খেলতে নামবে টাইগাররা। এই ম্যাচটি জিততে পারলেই সিরিজ নিশ্চিত হয়ে যাবে লিটন বাহিনীর। হারলেও সুযোগ থাকবে। কিন্তু সে অপেক্ষা করতে কে চাইবে!

সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে মিরপুর শেরে বাংলার পিচ রহস্যময় আচরণ করেছে। শেরে বাংলার পিচের চরিত্রই তো এমন! কখন কী করে বলা মুশকিল। আর অননুমেয় পিচ সাধারণত সফরকারি দলকেই ভোগায় বেশি।

প্রথম ওয়ানডেতে যেমন ভারতকে ভুগিয়েছে। বাংলাদেশের তাই মিরপুর থেকেই সিরিজ জয়ের মিশন কমপ্লিট করে যাওয়ার চেষ্টা করতে হবে। ভারত আজ জিতে গেলে যেভাবেই হোক সিরিজ নিজেদের করে নিতে চাইবে। তাই রোহিত শর্মার দলকে চড়ে বসতে দেওয়া যাবে না।

প্রথম ওয়ানডেতে ভারতের শক্তিশালী ব্যাটিং লাইনআপকে ১৮৬ রানেই ধ্বসিয়ে দিয়েছিল বাংলাদেশ। শুধু মিরপুরের পিচের কথা বলা কেন? মিরপুরের পিচ স্পিনারদের সাহায্য করে থাকে হয়তো। কিন্তু বাঁহাতি স্পিনে শুধু সাকিব আল হাসানই নন, গতিতে ভারতীয়দের নাকাল করেছেন এবাদত হোসেনও।

তার মানে পিচের সহায়তাই মুখ্য ছিল না, সাকিব-এবাদতরা আসলে ভালো বোলিংই করেছেন। এরপর ব্যাট হাতে লড়াকু মানসিকতার পরিচয় দিয়েছেন মেহেদি হাসান মিরাজ। শেষ উইকেটে মোস্তাফিজুর রহমানকে নিয়ে ৫১ রানের অবিশ্বাস্য এক জুটি গড়ে ম্যাচ জিতিয়েছেন এই অলরাউন্ডার।

ভারতের শক্তিশালী ব্যাটিং লাইনআপকে গুঁড়িয়ে দেওয়া কিংবা চাপের মুখে ঘুরে দাঁড়িয়ে তুলে নেওয়া জয়, বাংলাদেশকে আত্মবিশ্বাসের রসদ জোগাবে নিঃসন্দেহে। কিন্তু ব্যাটিংটা নিয়ে দুশ্চিন্তা তো রয়েই গেলো।

রোজ রোজ তো আর লোয়ার অর্ডারের মিরাজ-মোস্তাফিজরা খেলে দেবেন না, সিরিজ জিততে হলে আজ জ্বলে উঠতে হবে শান্ত, সাকিব, মুশফিক, মাহমুদউল্লাহদেরও। তাহলেই ৭ বছর পর আরেকটি ইতিহাস হবে। ভারতের বিপক্ষে দ্বিতীয়বারের মতো ওয়ানডে সিরিজ জয়ের কীর্তি গড়বে টাইগাররা।