• শুক্রবার   ১৯ আগস্ট ২০২২ ||

  • ভাদ্র ৩ ১৪২৯

  • || ২০ মুহররম ১৪৪৪

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করলেন জাতিসংঘ মানবাধিকার প্রধান বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর আ. লীগের নেতারা কী করেছিলেন: প্রধানমন্ত্রী সুশীল বাবু মইনুল খুনিদের নিয়ে দল গঠন করে: প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু হত্যায় জড়িতরা আজ মানবাধিকারের কথা বলে: প্রধানমন্ত্রী ভারত পারলে আমরাও রাশিয়া থেকে তেল কিনতে পারবো: প্রধানমন্ত্রী ‘ষড়যন্ত্র প্রতিহত করে বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচারের রায় কার্যকর করেছি’ খবরদার আন্দোলনকারীদের ডিস্টার্ব করবেন না: প্রধানমন্ত্রী জাতির পিতার মৃত্যু নেই প্রজন্ম থেকে প্রজন্মান্তরে বঙ্গবন্ধু আমাদের রোল মডেল শোক দিবসে বঙ্গভবনে বিশেষ দোয়ার আয়োজন রাষ্ট্রপতির টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানোর বিষয়ে পরিষ্কার ব্যাখ্যার নির্দেশ বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল ট্রাস্টের সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত মানবাধিকার কমিশনকে যথাযথভাবে দায়িত্ব পালনের নির্দেশ রাষ্ট্রপতির ৪০০তম ওয়ানডে খেলার অপেক্ষায় বাংলাদেশ জ্বালানি নিরাপত্তা: বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনার অবদান রাজনৈতিক সিদ্ধান্তে বঙ্গমাতার মনোভাব প্রতিফলিত হয়েছে বঙ্গমাতার সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা স্বাধীনতার সংগ্রামে বঙ্গবন্ধুর সারথি ছিলেন আমার মা: প্রধানমন্ত্রী বঙ্গমাতা কঠিন দিনগুলোতে ছিলেন দৃঢ় ও অবিচল: রাষ্ট্রপতি

‘থার্টি ফার্স্ট নাইট’ উদযাপন: সাগরকন্যা কুয়াকাটায় লাখো পর্যটক

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ১ জানুয়ারি ২০২২  

একদিকে শীত, অন্যদিকে সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ। তাই তো পুরাতন বছরকে বিদায় ও নতুন বছরকে বরণ করে নিতে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে থার্টি ফার্স্ট নাইট উপলক্ষে সাগরকন্যা খ্যাত কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকতে ছুটে এসেছেন লাখো পর্যটক।

তীব্র শীতে সৈকতের বালিয়ারীতে প্রিয়জননের সঙ্গে অবিরাম ছুটোছুটি আর সমুদ্রের গর্জন যেন পর্যটকদের মুগ্ধ করে তুলেছে। নানা বয়সী পর্যটকের আগমনে রাখাইন মার্কেট, ঝিনুকের দোকান, খাবার ঘর, চটপটির দোকানসহ পর্যটন নির্ভর ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো মুখরিত হয়ে উঠেছে।

দূর-দূরান্ত থেকে ছুটে আসা ভ্রমণপিপাসু পর্যটকের উন্মাদনায় সৈকত জুড়ে আনন্দময় পরিবেশ বিরাজ করছে।

সরেজমিনে দেখা গেছে, ঐতিহ্যবাহী কুয়া, শ্রীমঙ্গল বৌদ্ধ বিহার, আড়াই শতবর্ষী নৌকা, ইলিশ পার্ক, কুয়াকাটা জাতীয় উদ্যান, ঝাউ বন, জাহাজমারা সৈকত, লেম্বুর চর, চর গঙ্গামতি, লাল কাঁকড়ার দ্বীপ, ফাতরার বন, এশিয়ার সর্ববৃহৎ সীমা বৌদ্ধ বিহার ও রাখাইন পল্লীসহ বিভিন্ন দর্শনীয় স্থানেও বাড়ছে পর্যটকদের সংখ্যা।

কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকতে পর্যটকের ঢল

কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকতে পর্যটকের ঢল

এদিকে ইংরেজি নতুন বছরকে বরণ করতে হোটেল-মোটেল-গেস্ট হাউস নতুন সাজে সাজানো হয়েছে। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে পরিবার-পরিজন কিংবা পছন্দের মানুষটিকে নিয়ে কুয়াকাটার নৈসর্গিক সৌন্দর্য উপভোগ করতে ছুটে এসেছেন পর্যটকরা। গত কয়েকদিন ধরে পর্যটকদের সংখ্যা বাড়ছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ছে সেলফি-ভিডিও। স্পটগুলো হয়ে উঠেছে উৎসব মুখর।

পর্যটকদের সার্বিক নিরাপত্তা দিতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরাও কাজ করছেন। পর্যটন সংশ্লিষ্ট ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলোতে বেচাকেনার ধুম পড়েছে। অধিকাংশ হোটেল, মোটেলের রুম আগে থেকেই বুকিং হয়ে গেছে।

শিক্ষার্থী শাহ নেওয়াজ বলেন, আমাদের কলেজের পরীক্ষা শেষ হয়েছে। বন্ধুদের সঙ্গে কুয়াকাটায় এসেছি। সমুদ্রের ঢেউয়ের গর্জন আর দর্শনীয় স্থানগুলো আসলেই মন ভালো করে দেয়। অসাধারণ অনুভূতি।

কুয়াকাটা ইলিশ পার্কের পরিচালক রুমান ইমতিয়াজ তুষার বলেন, পর্যটকদের ভিড় বাড়ছে। পর্যটকদের বিনোদন দিতে আমরা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।

মহিপুর থানার ওসি খন্দকার আবুল খায়ের বলেন, পর্যটকদের পর্যাপ্ত নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সব ধরনের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে।