• শনিবার   ২৯ জানুয়ারি ২০২২ ||

  • মাঘ ১৬ ১৪২৮

  • || ২৪ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
লবিস্ট নিয়োগের অর্থ বিএনপি কোথায় পেল ব্যাখ্যা দিতে হবে ‘সংস্কৃতি চর্চার মাধ্যমে মানুষের হৃদয়ের কাছাকাছি পৌঁছানো যায়’ জাতির পিতাকে হত্যার পর প্রতিবাদ করেছেন কবিরা: প্রধানমন্ত্রী নির্বাচন কমিশন বিল সংসদে পাস দেশে এক বছরে প্রায় পৌনে ১৬ কোটি ডোজ টিকাদান সমৃদ্ধ অঞ্চল গড়তে ভারতের সাথে কাজ করবে বাংলাদেশ ৭ লাখ ৪১ হাজার বুস্টার ডোজ দেওয়া হয়েছে: সংসদে প্রধানমন্ত্রী টিকা আবিষ্কারের আগেই সংগ্রহের উদ্যোগ নিয়েছিলাম: প্রধানমন্ত্রী আমদানি-রপ্তানিতে কাস্টমস গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে: রাষ্ট্রপতি ব্যবসায়ীদের উন্নত ডিজিটাল সেবা দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছে সরকার প্রজাতন্ত্র দিবসে মোদীকে শুভেচ্ছা জানালেন শেখ হাসিনা পুলিশের সেবা প্রার্থীরা যেন হয়রানির শিকার না হয়: রাষ্ট্রপতি বারবার প্রকল্প সংশোধনে বিরক্তি প্রকাশ প্রধানমন্ত্রীর দেশীয় উদ্যোক্তারা বিদেশে সার কারখানা নির্মাণে বিনিয়োগ করতে পারবে গণঅভ্যুত্থানের চেতনায় সমৃদ্ধ দেশ গঠনের আহ্বান রাষ্ট্রপতির করোনায় ভয়াবহ কিছু হবে না: অর্থমন্ত্রী শহীদ আসাদ গণতন্ত্রপ্রেমী মানুষের মাঝে স্মরণীয় হয়ে থাকবেন গণতন্ত্রের ইতিহাসে শহীদ আসাদ দিবস একটি অবিস্মরণীয় দিন ‘বাংলাদেশকে আর কেউ অবহেলা করতে পারবে না’ সার্বভৌমত্বের ওপর আঘাত এলে চুপ থাকবে না বাংলাদেশ: প্রধানমন্ত্রী

‘থার্টি ফার্স্ট নাইট’ উদযাপন: সাগরকন্যা কুয়াকাটায় লাখো পর্যটক

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ১ জানুয়ারি ২০২২  

একদিকে শীত, অন্যদিকে সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ। তাই তো পুরাতন বছরকে বিদায় ও নতুন বছরকে বরণ করে নিতে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে থার্টি ফার্স্ট নাইট উপলক্ষে সাগরকন্যা খ্যাত কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকতে ছুটে এসেছেন লাখো পর্যটক।

তীব্র শীতে সৈকতের বালিয়ারীতে প্রিয়জননের সঙ্গে অবিরাম ছুটোছুটি আর সমুদ্রের গর্জন যেন পর্যটকদের মুগ্ধ করে তুলেছে। নানা বয়সী পর্যটকের আগমনে রাখাইন মার্কেট, ঝিনুকের দোকান, খাবার ঘর, চটপটির দোকানসহ পর্যটন নির্ভর ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো মুখরিত হয়ে উঠেছে।

দূর-দূরান্ত থেকে ছুটে আসা ভ্রমণপিপাসু পর্যটকের উন্মাদনায় সৈকত জুড়ে আনন্দময় পরিবেশ বিরাজ করছে।

সরেজমিনে দেখা গেছে, ঐতিহ্যবাহী কুয়া, শ্রীমঙ্গল বৌদ্ধ বিহার, আড়াই শতবর্ষী নৌকা, ইলিশ পার্ক, কুয়াকাটা জাতীয় উদ্যান, ঝাউ বন, জাহাজমারা সৈকত, লেম্বুর চর, চর গঙ্গামতি, লাল কাঁকড়ার দ্বীপ, ফাতরার বন, এশিয়ার সর্ববৃহৎ সীমা বৌদ্ধ বিহার ও রাখাইন পল্লীসহ বিভিন্ন দর্শনীয় স্থানেও বাড়ছে পর্যটকদের সংখ্যা।

কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকতে পর্যটকের ঢল

কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকতে পর্যটকের ঢল

এদিকে ইংরেজি নতুন বছরকে বরণ করতে হোটেল-মোটেল-গেস্ট হাউস নতুন সাজে সাজানো হয়েছে। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে পরিবার-পরিজন কিংবা পছন্দের মানুষটিকে নিয়ে কুয়াকাটার নৈসর্গিক সৌন্দর্য উপভোগ করতে ছুটে এসেছেন পর্যটকরা। গত কয়েকদিন ধরে পর্যটকদের সংখ্যা বাড়ছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ছে সেলফি-ভিডিও। স্পটগুলো হয়ে উঠেছে উৎসব মুখর।

পর্যটকদের সার্বিক নিরাপত্তা দিতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরাও কাজ করছেন। পর্যটন সংশ্লিষ্ট ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলোতে বেচাকেনার ধুম পড়েছে। অধিকাংশ হোটেল, মোটেলের রুম আগে থেকেই বুকিং হয়ে গেছে।

শিক্ষার্থী শাহ নেওয়াজ বলেন, আমাদের কলেজের পরীক্ষা শেষ হয়েছে। বন্ধুদের সঙ্গে কুয়াকাটায় এসেছি। সমুদ্রের ঢেউয়ের গর্জন আর দর্শনীয় স্থানগুলো আসলেই মন ভালো করে দেয়। অসাধারণ অনুভূতি।

কুয়াকাটা ইলিশ পার্কের পরিচালক রুমান ইমতিয়াজ তুষার বলেন, পর্যটকদের ভিড় বাড়ছে। পর্যটকদের বিনোদন দিতে আমরা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।

মহিপুর থানার ওসি খন্দকার আবুল খায়ের বলেন, পর্যটকদের পর্যাপ্ত নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সব ধরনের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে।