• শনিবার   ২৯ জানুয়ারি ২০২২ ||

  • মাঘ ১৬ ১৪২৮

  • || ২৪ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
লবিস্ট নিয়োগের অর্থ বিএনপি কোথায় পেল ব্যাখ্যা দিতে হবে ‘সংস্কৃতি চর্চার মাধ্যমে মানুষের হৃদয়ের কাছাকাছি পৌঁছানো যায়’ জাতির পিতাকে হত্যার পর প্রতিবাদ করেছেন কবিরা: প্রধানমন্ত্রী নির্বাচন কমিশন বিল সংসদে পাস দেশে এক বছরে প্রায় পৌনে ১৬ কোটি ডোজ টিকাদান সমৃদ্ধ অঞ্চল গড়তে ভারতের সাথে কাজ করবে বাংলাদেশ ৭ লাখ ৪১ হাজার বুস্টার ডোজ দেওয়া হয়েছে: সংসদে প্রধানমন্ত্রী টিকা আবিষ্কারের আগেই সংগ্রহের উদ্যোগ নিয়েছিলাম: প্রধানমন্ত্রী আমদানি-রপ্তানিতে কাস্টমস গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে: রাষ্ট্রপতি ব্যবসায়ীদের উন্নত ডিজিটাল সেবা দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছে সরকার প্রজাতন্ত্র দিবসে মোদীকে শুভেচ্ছা জানালেন শেখ হাসিনা পুলিশের সেবা প্রার্থীরা যেন হয়রানির শিকার না হয়: রাষ্ট্রপতি বারবার প্রকল্প সংশোধনে বিরক্তি প্রকাশ প্রধানমন্ত্রীর দেশীয় উদ্যোক্তারা বিদেশে সার কারখানা নির্মাণে বিনিয়োগ করতে পারবে গণঅভ্যুত্থানের চেতনায় সমৃদ্ধ দেশ গঠনের আহ্বান রাষ্ট্রপতির করোনায় ভয়াবহ কিছু হবে না: অর্থমন্ত্রী শহীদ আসাদ গণতন্ত্রপ্রেমী মানুষের মাঝে স্মরণীয় হয়ে থাকবেন গণতন্ত্রের ইতিহাসে শহীদ আসাদ দিবস একটি অবিস্মরণীয় দিন ‘বাংলাদেশকে আর কেউ অবহেলা করতে পারবে না’ সার্বভৌমত্বের ওপর আঘাত এলে চুপ থাকবে না বাংলাদেশ: প্রধানমন্ত্রী

মালদ্বীপে খুললো ৯২৭ পর্যটন কেন্দ্র

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ৩ জানুয়ারি ২০২২  

পৃথিবীর অন্যতম সৌন্দর্যমন্ডিত দেশ ভারত মহাসাগরের দ্বীপরাষ্ট্র মালদ্বীপ। মনোরম পরিবেশ আদিম সমুদ্র সৈকত দেশটির প্রধান আকর্ষণ। যেখানে পানির রং নীল আর বালির রং সাদা।

১২০০ ছোট দ্বীপ নিয়ে মালদ্বীপ গঠিত। এর মধ্যে ২০০টি দ্বীপ ব্যবহারযোগ্য। এতে রয়েছে ২৬টি অ্যাটোল। মালদ্বীপ বিশ্বের সবচেয়ে নিচু দেশ। সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে এর গড় উচ্চতা মাত্র এক দশমিক পাঁচ মিটার। বিষুবরেখার কাছে অবস্থিত হওয়ায় এখানে মাত্র একটি ঋতু আছে। সারা বছরের গড় তাপমাত্রা ২৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

প্রাচীনকাল থেকেই সামুদ্রিক মাছ হচ্ছে দেশটির অর্থনীতির মূলভিত্তি। টুনা মাছের জন্যও বিখ্যাত দেশটি। তবে বর্তমানে মালদ্বীপের বড় শিল্প হলো পর্যটন। বৈদেশিক আয়ের ৭০ শতাংশই আসে এ খাত থেকে।

মালদ্বীপে সর্বমোট ১ হাজার ১৪০টি রিসোর্ট হোটেল গেস্টহাউস পর্যটকদের জন্য চালু ছিলো করোনার আগে। গত দুই সপ্তাহে মালদ্বীপজুড়ে যে পর্যটন কেন্দ্রগুলো আবার চালু হয়েছে সেগুলো হলো ১ লাইভবোর্ড এবং ১০টি গেস্টহাউস।

নতুন ১১টিসহ বেড়ে ৯২৭ এ দাঁড়িয়েছে, যার মধ্যে ১৬১টি রিসোর্ট, ৬১১টি গেস্টহাউস, ১০টি হোটেল এবং ১৪৫টি লাইভবোর্ড রয়েছে। মালদ্বীপে সর্বমোট ১ হাজার ১৪০টি রিসোর্ট হোটেল গেস্টহাউস পর্যটকদের জন্য চালু ছিল করোনার আগে।

মালদ্বীপের স্বাস্থ্য সুরক্ষা সংস্থার (এইচপিএ) একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, যেসব পর্যটক কোভিড-১৯ টিকা সম্পূর্ণ করেননি তাদের আবাসিক দ্বীপের গেস্টহাউসগুলিতে রুম বুকিং করতে দেওয়া হবে। শুধুমাত্র যারা ভ্যাকসিনের উভয় ডোজ সম্পূর্ণ করার পরে ১৪ দিন অতিক্রম করেছে তারা স্থানীয় গেস্টহাউস ব্যবহার করতে পারবেন।

করোনার জন্য মালদ্বীপের রিসোর্ট হোটেল রেস্টহাউজ বন্ধ হওয়ার প্রায় চার মাস পর ১৫ জুলাই সীমিত পরিসরে খুলেছিল এবং প্রথমে রিসোর্ট ও লাইভবোর্ড জাহাজগুলোকে কাজ শুরু করার জন্য সবুজ সংকেত দেওয়া হয়েছিল।

এদিকে মালদ্বীপে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১৬১ জন। এর মধ্যে মালে ৪০ জন ও রাজধানীর বাইরে আইল্যান্ডগুলোতে ৪১ জন, বিভিন্ন পর্যটন কেন্দ্রে ৮০ জন।

এ নিয়ে এখন পর্যন্ত মালদ্বীপে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ৯৬ হাজার ৫২ জন। রোববার (২ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় মালদ্বীপের স্বাস্থ্য সুরক্ষা সংস্থা, নিয়মিত সংবাদ বুলেটিনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।