• বুধবার ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ৮ ১৪৩০

  • || ১০ শা'বান ১৪৪৫

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
অশিক্ষার অন্ধকারে কেউ থাকবে না: প্রধানমন্ত্রী একুশ মাথা নত না করতে শেখায়: প্রধানমন্ত্রী একুশে পদক তুলে দিলেন প্রধানমন্ত্রী মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস আগামীকাল মিউনিখ সম্মেলনে শেখ হাসিনাকে নিমন্ত্রণ বাংলাদেশের গুরুত্ব বুঝায় গুণীজনদের সম্মাননা ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে অনুপ্রাণিত করবে : রাষ্ট্রপতি একুশে পদকপ্রাপ্তদের অনুসরণ করে তরুণরা সোনার বাংলা বিনির্মাণ করবে আজ একুশে পদক তুলে দেবেন প্রধানমন্ত্রী মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলনে যোগদান শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী মিউনিখ সফর শেষে ঢাকার পথে প্রধানমন্ত্রী বরই খেয়ে দুই শিশুর মৃত্যু, কারণ অনুসন্ধান করবে আইইডিসিআর দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের উপযুক্ত জবাব দিন: প্রধানমন্ত্রী গাজায় যা ঘটছে তা গণহত্যা: শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সাক্ষাৎ নেদারল্যান্ডস, যুক্তরাজ্য, আজারবাইজান থেকে বড় বিনিয়োগ আহ্বান জার্মান চ্যান্সেলরের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর বৈঠক শান্তি ফর্মুলা বাস্তবায়নে শেখ হাসিনার সহযোগিতা চাইলেন জেলেনস্কি কাতারের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করেছেন শেখ হাসিনা কিছু খুচরো দল তিড়িং বিড়িং করে লাফাচ্ছে: শেখ হাসিনা মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীকে বিশ্বনেতাদের অভিনন্দন

বঙ্গবন্ধু পরিবারটাই আলোকিত পরিবার: শামীম

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪  

শরীয়তপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য ও সাবেক পানি সম্পদ উপমন্ত্রী একেএম এনামুল হক শামীম বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে আমরা একটি স্বাধীন দেশ পেয়েছি। আর বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা ডিজিটাল বাংলাদেশ থেকে স্মার্ট বাংলাদেশের দিকে এগিয়ে যাচ্ছি। বঙ্গবন্ধু পরিবারের সদস্যরা বাংলাদেশকে তাদের আলোয় আলোকিত করতে কাজ করে যাচ্ছেন। জননেত্রী শেখ হাসিনার পুত্র সজীব ওয়াজেদ জয় বিশ্বখ্যাত তথ্য ও প্রযুক্তিবিদ। কন্যা বৈশ্বিক অটিজম বিশেষজ্ঞ সায়মা ওয়াজেদ পুতুল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা'র দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার আঞ্চলিক পরিচালক, বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ রেহানার পুত্র রাদওয়ান মুজিব সিদ্দিক ববি বিশ্বমানের শিক্ষায় শিক্ষিত, কন্যা টিউলিপ সিদ্দিক ব্রিটিশ পার্লামেন্টের ছায়া উপমন্ত্রী হয়েছেন। বঙ্গবন্ধু  পরিবারটাই আলোকিত পরিবার। তাদের আলোয় আলোকিত করতে চান বাংলাদেশকে।

রবিবার (১১ ফেব্রুয়ারি) বিকালে শরীয়তপুরের সখিপুর ইসলামিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তাঁর পরিবারের সদস্যরা বাংলাদেশের জন্য আশীর্বাদ। জাতির পিতা যদি বেঁচে থাকতেন তবে বহু আগেই বাংলাদেশ উন্নত রাষ্ট্রে পরিণত হতো। তাঁর সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ বিশ্ব দরবারে উন্নয়নের রোল মডেলে পরিণত হয়েছে।

এনামুল হক শামীম বলেন, নড়িয়া ও সখিপুরের মানুষ আমাকে সর্বোচ্চ দিয়ে দ্বিতীয় বারের মতো সংসদ সদস্য নির্বাচিত করেছেন। আমি এই পাঁচ বছর আগের চেয়ে আরও বেশি কাজ করে সেই ঋণ পরিশোধ করবো। সখিপুরকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা থানা করেছেন। তিনি এই মেয়াদেই সখিপুরকে উপজেলা করবেন। তিনি এই মেয়াদেই মেঘনা সেতুর ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধন করবেন। ফোর লেনের কাজও এগিয়ে চলছে। এই জনপদকে উন্নত সমৃদ্ধ করতে যা যা যা দরকার তাই করা হবে।

তিনি আরও বলেন, নড়িয়া ও সখিপুরের সকল ননএমপিওভুক্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিও ভুক্ত করা হয়েছে। নতুন নতুন ভবন, শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব, সীমানা প্রাচীর গত মেয়াদেই করা হয়েছে।
শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ভর্তি ফি ও বেতন কমানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে। কোনো মোবাইল ফোন নিয়ে স্কুলে যাবেন না, প্রাইভেট পড়ানো যাবে না। শিক্ষার্থীদেরও পড়াশোনায় আরও মনোনিবেশ করতে হবে। খেলাধুলায় আগ্রহী হতে হবে। মাদক ও ইভিটিজিংকে না বলতে হবে। এই প্রজন্মের শিক্ষার্থীদের সৌভাগ্য তোমরা জননেত্রী শেখ হাসিনার মতো প্রধানমন্ত্রী পেয়েছো। যিনি প্রায়ই একটা কথা বলেন, "এই পৃথিবীতে বাসযোগ্য করে যেতেই নবজাতকের কাছে।" কারণ, তোমরাই আগামীদিনের বাংলাদেশের নেতৃত্ব দিবে। সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করে দেশকে এগিয়ে নিতে হবে।

স্কুল ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মোয়াজ্জেম হোসেন সরদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, উপজেলা চেয়ারম্যান ও সখিপুর থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি হুমায়ুন কবির মোল্যা, ইউএনও রাজিবুল ইসলাম, জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান এমএ কাইউম, সখিপুর থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আতিকুর রহমান মানিক সরকার প্রমূখ।

এরআগে সখিপুরের আব্দুল গণি উচ্চ বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে যোগদান করেন এবং উত্তর তারাবুনিয়া আব্বাস আলী স্কুল এন্ড কলেজ পরিদর্শন করেন এনামুল হক শামীম। এসময় তিনি তাঁর রত্নাগর্ভা মায়ের নামে প্রতিষ্ঠিত বেগম আশ্রাফুন্নেছা ফাউন্ডেশনের পক্ষে মেধাবী ও গরীব শিক্ষার্থীদের বৃত্তিপ্রদান করেন।