• শুক্রবার   ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ||

  • মাঘ ২১ ১৪২৯

  • || ১১ রজব ১৪৪৪

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
জনগণের ভাগ্য নিয়ে ছিনিমিনি খেলতে আসিনি: প্রধানমন্ত্রী সবাইকে হিসাব করে চলার অনুরোধ প্রধানমন্ত্রীর উন্নত-সমৃদ্ধ দেশ গড়তে কৃষি উন্নয়নের বিকল্প নেই: প্রধানমন্ত্রী ক্রীড়া শিক্ষায় বাস্তবমুখী পদক্ষেপ নিয়েছি: প্রধানমন্ত্রী নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিতে কাজ করছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী জনস্বাস্থ্য নিশ্চিতে নিরাপদ ও পুষ্টিকর খাদ্যের বিকল্প নেই জনগণকে বিশ্বাস করি, তারা যদি চায় আমরা থাকবো: প্রধানমন্ত্রী ২০২২-২৩ অর্থবছরে ১০ বিলিয়ন ডলারের বেশি রেমিট্যান্স এসেছে ভাষা-সাহিত্য চর্চাও ডিজিটাল করার পরামর্শ প্রধানমন্ত্রীর রাষ্ট্রপতির সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ মানহীন শিক্ষায় উচ্চশিক্ষিত বেকার বাড়ছে: রাষ্ট্রপতি গণতান্ত্রিক ধারাকে বাধাগ্রস্ত করতে চায় এক শ্রেণির বুদ্ধিজীবী মুসলিম উম্মাহকে ফিলিস্তিনের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান দেশের ব্যাপক উন্নয়ন বিবেচনায় নিতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান গণতান্ত্রিক ধারা অব্যাহত থাকলেই মানুষের উন্নতি হয়: প্রধানমন্ত্রী আমি জোর করে দেশে ফিরেছিলাম, আ.লীগ পালায় না: শেখ হাসিনা আজ ১১ প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী ১-৭ মার্চ মোবাইলে কল করলেই শোনা যাবে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ পুলিশি সেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিন: প্রধানমন্ত্রী সন্ত্রাস রুখে দিতে প্রশংসনীয় ভূমিকা রেখে যাচ্ছে পুলিশ

ভোলায় নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ইলিশ শিকারে ২৯ জেলে আটক

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ১৬ অক্টোবর ২০২২  

ভোলা প্রতিনিধিঃ ইলিশের প্রধান প্রজনন মৌসুমে  সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মা ইলিশ ধরার দায়ে ২৯ জেলেকে আটক করা হয়েছে। অভিযানের নবম দিনে ভোলার মেঘনা ও তেতুঁলিয়া নদীতে যৌথ অভিযান চালিয়ে মৎস বিভাগ ও নৌ-পুলিশ  জেলেদের আটক করে। এ সময় তাদের কাছ থেকে ১৭ হাজার মিটার কারেন্ট জাল, ৫ ইনিঞ্জ চালিত নৌকা,৫০ কেজি ইলিশ জব্দ করা হয়। 

শুক্রবার (১৪ অক্টোবর) রাত থেকে শনিবার দুপুর পর্যন্ত চলে এ অভিযান। ভোলা জেলা  মৎস অফিস ও ভোলা নৌ পুলিশ থানার সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

ভোলা নৌ পুলিশের ওসি মো. আখতার হোসেন বলেন, শুক্রবার  রাত থেকে শনিবার ভোর রাত পর্যন্ত অভয়াশ্রমে  এলাকার মেঘনা নদীর  থেকে গত ২৪ ঘণ্টায় ১৮ জেলেকে আটক করা হয়েছে।  পরে তাদেরকে মৎস্য আইনে নিয়মিত মামলা  করে আদালতে প্রেরন করা হয়। এসময় জেলেদের আটক করতে গিয়ে  জেলেদের সাথে  নৌ-পুলিশের সংঘর্ষ হয়।এসময় ২ রাউন্ড গুলি বিনিময় হয়। এই  সময়  দুই পুলিশ সহ ৪ জন আহত হয়। আহতরা হলেন নৌ- পুলিশের এস আই ডালিম, এএসআই বিল্লাল। 

এ সময় নৌ-পুলিশ ১০ হাজার মিটার কারেন্ট জাল, ২০ কেজি ইলিশ জব্দ করা হয়েছে। পরে  মাছ স্থানীয় এতিমখানা ও গরিব দুস্থদের মধ্যে বিতরণ করা হয়েছে। উদ্ধার করা কারেন্ট জাল আগুনে পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়েছে।

জেলা মৎস বিভাগ জানান,নিয়মিত অভিযানের অংশ হিসেবে শুক্রবার রাত থেকে শনিবার সকাল পর্যন্ত মৎস অফিসের নেতৃত্বে  তেতুঁলিয়া নদীতে অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ইলিশ মাছ ধরায়  ১১ জেলেকে আটক করে হয়। তাদের মধ্যে ৪ জনকে মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়। ১ জনকে ৫ হাজার টাকা জরিবানা করা হয়। বাকিদের ১৫ দিন করে কারাদন্ড  প্রদান করা হয়। এছাড়া তাদের কাছ থেকে জব্দ করা জাল পুড়িয়ে ধ্বংস কা হয় এবং মাছগুলো স্থানীয় এতিমখানায় বিতরণ করা হয়।

জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোল্লা এমদাদুল্যাহ জানিয়েছেন নদীতে অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে। প্রশাসন কঠোর অবস্থানে রয়েছে। অভিযানে আটকদের নিয়ম অনুযায়ী জেল-জরিমানা করা হচ্ছে। প্রসঙ্গত, মা ইলিশ রক্ষায় ৭ অক্টোবর থেকে আগামী ২৮ অক্টোবর পর্যন্ত ২২ দিন নদীতে সব ধরনের মাছ শিকারে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে সরকার।