• বুধবার ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ৮ ১৪৩০

  • || ১০ শা'বান ১৪৪৫

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
অশিক্ষার অন্ধকারে কেউ থাকবে না: প্রধানমন্ত্রী একুশ মাথা নত না করতে শেখায়: প্রধানমন্ত্রী একুশে পদক তুলে দিলেন প্রধানমন্ত্রী মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস আগামীকাল মিউনিখ সম্মেলনে শেখ হাসিনাকে নিমন্ত্রণ বাংলাদেশের গুরুত্ব বুঝায় গুণীজনদের সম্মাননা ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে অনুপ্রাণিত করবে : রাষ্ট্রপতি একুশে পদকপ্রাপ্তদের অনুসরণ করে তরুণরা সোনার বাংলা বিনির্মাণ করবে আজ একুশে পদক তুলে দেবেন প্রধানমন্ত্রী মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলনে যোগদান শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী মিউনিখ সফর শেষে ঢাকার পথে প্রধানমন্ত্রী বরই খেয়ে দুই শিশুর মৃত্যু, কারণ অনুসন্ধান করবে আইইডিসিআর দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের উপযুক্ত জবাব দিন: প্রধানমন্ত্রী গাজায় যা ঘটছে তা গণহত্যা: শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সাক্ষাৎ নেদারল্যান্ডস, যুক্তরাজ্য, আজারবাইজান থেকে বড় বিনিয়োগ আহ্বান জার্মান চ্যান্সেলরের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর বৈঠক শান্তি ফর্মুলা বাস্তবায়নে শেখ হাসিনার সহযোগিতা চাইলেন জেলেনস্কি কাতারের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করেছেন শেখ হাসিনা কিছু খুচরো দল তিড়িং বিড়িং করে লাফাচ্ছে: শেখ হাসিনা মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীকে বিশ্বনেতাদের অভিনন্দন

রাখাইনে কর্মরত ১০ বাংলাদেশির ৩ জন ইয়াংগুনে পৌঁছেছেন

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪  

রাখাইনের সিতওয়েতে বাংলাদেশ মিশনে কর্মরত ১০ বাংলাদেশি কর্মকর্তা, কর্মচারী ও তাদের পরিবারের সদস্যদের মধ্যে ৩ জন রবিবার (১১ ফেব্রুয়ারি) ইয়াংগুনে পৌঁছেছেন। বাকি ৭ জন মঙ্গলবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) ইয়াংগুনে পৌঁছাবেন আশা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে একাধিক সূত্র।

এ বিষয়ে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা বলেন, ‘নিরাপত্তাজনিত কারণে বাংলাদেশিদের সরিয়ে আনা হচ্ছে। তারা ইয়াংগুনে অবস্থান করবেন এবং পরবর্তী সময়ে পরিস্থিতি ভালো হলে তাদের আবার ফেরত পাঠানো হবে।’

সিতওয়েতে বাংলাদেশ মিশনে স্থানীয় কর্মচারীরা অবস্থান করছে এবং তাদের নিরাপত্তা দেওয়ার জন্য মিয়ানমার কর্তৃপক্ষকে লিখিতভাবে জানানো হয়েছে বলেও জানান ওই কর্মকর্তা।

উল্লেখ্য, রাখাইনে চলমান মিয়ানমার বাহিনী ও আরাকান আর্মির মধ্যে সংঘাতের কারণে নিরাপত্তা পরিস্থিতির অবনতি হয়। সে কারণে অন্যান্য বিদেশি মিশন ও জাতিসংঘের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের অন্যত্র সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে।

আরেকজন কর্মকর্তা বলেন, ‘সিতওয়ে থেকে প্রতিদিন মাত্র একটি ফ্লাইট ইয়াংগুনে আসে এবং সেখানে টিকিট পাওয়া দুষ্কর হয়ে পড়েছে। কষ্ট করে টিকিটের ব্যবস্থা করতে হয়েছে।’

এদিকে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা মিয়ানমার বাহিনীর ৩৩০ সদস্যকে এ সপ্তাহের মধ্যে সমুদ্রপথে ফেরত পাঠানো হবে। এ বিষয়ে রবিবার পররাষ্ট্র সচিবের সভাপতিত্বে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে একটি আন্তমন্ত্রণালয় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

এ প্রসঙ্গে একজন কর্মকর্তা বলেন, ‘মিয়ানমারের যুদ্ধজাহাজ তাদের বাহিনীর সদস্যদের নেওয়ার জন্য ইতোমধ্যে বাংলাদেশ উপকূলের কাছে আছে। বাংলাদেশের অনুমোদন সাপেক্ষে তারা আউটার অ্যাংকরেজে অপেক্ষা করবে এবং তাদের লোকদের নিয়ে যাবে।’

কক্সবাজারে যে জেটি আছে সেখানে ওই জাহাজ ভিড়তে পারবে না এবং মিয়ানমার নাগরিকদের ছোট ট্রলার বা নৌকায় করে আউটার অ্যাংকরেজের জাহাজে নিয়ে যাওয়া হবে বলেও তিনি জানান।

তিনি বলেন, ‘আমরা এ সপ্তাহের মধ্যে পুরো প্রক্রিয়া সম্পন্ন করবো। বর্তমানে প্রায় সবাই টেকনাফে অবস্থান করছেন। এছাড়া আহত কয়েকজনকে চট্টগ্রামের একটি হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। তাদেরও তারিখ ঠিক হলে কক্সবাজারে নিয়ে আসা হবে।’