• শনিবার ২৫ মে ২০২৪ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১১ ১৪৩১

  • || ১৬ জ্বিলকদ ১৪৪৫

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
ঢাকায় কোনো বস্তি থাকবে না, দিনমজুররাও ফ্ল্যাটে থাকবে অগ্নিসংযোগকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণের হুঁশিয়ারি বঙ্গবাজারে বিপণী বিতানসহ চারটি উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন নজরুলের বলিষ্ঠ লেখনী মানুষকে মুক্তি সংগ্রামে উদ্দীপ্ত করেছে জোটের শরিক দলগুলোকে সংগঠিত ও জনপ্রিয় করতে নির্দেশ সন্ধ্যায় ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিতে পারে রেমাল বঙ্গবাজার বিপনী বিতানসহ ৪ প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী কৃষিতে ফলন বাড়াতে অস্ট্রেলিয়ার প্রযুক্তি সহায়তা চান প্রধানমন্ত্রী বাজার মনিটরিংয়ে জোর দেওয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর ‘বঙ্গবন্ধু শান্তি পদক’ দেবে বাংলাদেশ ইরানের প্রেসিডেন্টের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক রাইসি-আমির আব্দুল্লাহিয়ান মারা গেছেন: ইরানি সংবাদমাধ্যম সকল ক্ষেত্রে সঠিক পরিমাপ নিশ্চিত করার আহ্বান রাষ্ট্রপতির ওজন ও পরিমাপ নিশ্চিতে কাজ করছে বিএসটিআই: প্রধানমন্ত্রী চাকরির পেছনে না ছুটে যুবকদের উদ্যোক্তা হওয়ার আহ্বান ‘সামান্য কেমিক্যালের পয়সা বাঁচাতে দেশের সর্বনাশ করবেন না’ ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করে আওয়ামী লীগ দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাবে শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস আজ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস আগামীকাল ন্যায়বিচার নিশ্চিত করতে বিচারকদের প্রতি আহ্বান রাষ্ট্রপতির

সড়ক-মহাসড়কে বিআরটিএর অভিযান: মামলা ৩৩০, জরিমানা ৭ লাখ টাকা

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ২২ এপ্রিল ২০২৪  

দেশের বিভিন্ন স্থানে সড়ক দুর্ঘটনা রোধ ও শৃঙ্খলা জোরদারে সড়ক-মহাসড়কে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেছে বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটি (বিআরটিএ)। অভিযানে বিভিন্ন অপরাধে ৩৩০ টি মামলায় ৭ লাখ ৫৭ হাজার ৩০০ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে। এ সময় ৩ টি গাড়ি ডাম্পিংয়ে পাঠানো হয়।

রোববার (২১ এপ্রিল) এ অভিযানে আটজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দায়িত্ব পালন করেন।

অভিযান প্রসঙ্গে বলা হয়, সড়ক দুর্ঘটনা রোধ ও সড়কে শৃংখলা জোরদার করার লক্ষ্যে বিআরটিএর এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট ও জেলা প্রশাসনের এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেটসহ আট বিভাগে সারা দেশের আঞ্চলিক সড়ক ও জাতীয় মহাসড়কে মোবাইল কোর্ট পরিচালিত হয়। অভিযানকালে বিভিন্ন অপরাধে ৩৩০ টি মামলায় ৭ লাখ ৫৭ হাজার ৩০০ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। এছাড়াও ৩ টি গাড়ি ডাম্পিংয়ে পাঠানো হয়।

এর আগে বিআরটিএ চেয়ারম্যান নুর মোহাম্মদ মজুমদার বলেন, ‘সড়ক দুর্ঘটনা রোধ, সড়কে শৃঙ্খলা জোরদার, অবৈধ নসিমন, করিমন, থ্রি হুইলার, ফিটনেসবিহীন মোটরযান, লাইসেন্সবিহীন মোটরসাইকেল ও ওভার স্পিড নিয়ন্ত্রণে বিআরটিএর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটরা আট বিভাগে আঞ্চলিক সড়ক ও জাতীয় মহাসড়কে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে অভিযান পরিচালনা করেন। যা চলমান থাকবে। অবৈধ যানবাহন রাস্তায় চলতে দেওয়া হবে না’।

ঈদের পর ধারাবাহিকভাবে সড়ক দুর্ঘটনা রোধে সোচ্চার হয় বিআরটিএ। এরই ধারাবাহিকতায় ১৭ এপ্রিল থেকে ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে ধারাবাহিক অভিযান পরিচালনার সিদ্ধান্ত নেয় রাষ্ট্রীয় পরিবহন নিয়ন্ত্রক এ সংস্থা। পাশাপাশি সংস্থার পক্ষ থেকে সারা দেশে অভিযান পরিচালনা করতে স্থানীয় প্রশাসনকেও অনুরোধ জানানো হয়েছে।