• শনিবার ২৫ মে ২০২৪ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১১ ১৪৩১

  • || ১৬ জ্বিলকদ ১৪৪৫

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
ঢাকায় কোনো বস্তি থাকবে না, দিনমজুররাও ফ্ল্যাটে থাকবে অগ্নিসংযোগকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণের হুঁশিয়ারি বঙ্গবাজারে বিপণী বিতানসহ চারটি উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন নজরুলের বলিষ্ঠ লেখনী মানুষকে মুক্তি সংগ্রামে উদ্দীপ্ত করেছে জোটের শরিক দলগুলোকে সংগঠিত ও জনপ্রিয় করতে নির্দেশ সন্ধ্যায় ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিতে পারে রেমাল বঙ্গবাজার বিপনী বিতানসহ ৪ প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী কৃষিতে ফলন বাড়াতে অস্ট্রেলিয়ার প্রযুক্তি সহায়তা চান প্রধানমন্ত্রী বাজার মনিটরিংয়ে জোর দেওয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর ‘বঙ্গবন্ধু শান্তি পদক’ দেবে বাংলাদেশ ইরানের প্রেসিডেন্টের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক রাইসি-আমির আব্দুল্লাহিয়ান মারা গেছেন: ইরানি সংবাদমাধ্যম সকল ক্ষেত্রে সঠিক পরিমাপ নিশ্চিত করার আহ্বান রাষ্ট্রপতির ওজন ও পরিমাপ নিশ্চিতে কাজ করছে বিএসটিআই: প্রধানমন্ত্রী চাকরির পেছনে না ছুটে যুবকদের উদ্যোক্তা হওয়ার আহ্বান ‘সামান্য কেমিক্যালের পয়সা বাঁচাতে দেশের সর্বনাশ করবেন না’ ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করে আওয়ামী লীগ দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাবে শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস আজ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস আগামীকাল ন্যায়বিচার নিশ্চিত করতে বিচারকদের প্রতি আহ্বান রাষ্ট্রপতির

মন্দিরে সিঁদুর পরিয়ে নারীকে ধর্ষণ, র‍্যাবের হাতে আটক

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ১৮ এপ্রিল ২০২৪  

মাগুরা জেলার সদরের চাঞ্চল্যকর ধর্ষণ মামলার পলাতক আসামি অনুপ কুমার চাকীকে (৩০) গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব)।

বুধবার (১৬ এপ্রিল) রাতে র‍্যাব-৩ এর একটি দল রাজধানীর তেঁজগাও থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে। অনুপ ঝিনাইদহের শৈলকূপা উপজেলার নিখিল কুমার চাকীর ছেলে।

জানা গেছে, স্বামী পরিত্যক্তা নারীর সঙ্গে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে সখ্যতা গড়ে তোলেন যুবক অনুপ কুমার চাকীর (৩০)। এরপর ওই নারীকে মন্দিরে নিয়ে সিঁদুর পরিয়ে বিয়ের নাটক সাজিয়ে শারীরিক সম্পর্ক গড়েন তিনি। তবে সংসার করতে চাইলে ওই নারীকে স্ত্রী বলে অস্বীকার করেন অনুপ। এরপর আদালতের মামলা হলে পলাতক ছিলেন তিনি। অবশেষে র‌্যাবের হাতে ধরা পড়েছেন তিনি।

র‍্যাব জানায়, মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) রাতে রাজধানীর তেঁজগাও এলাকা থেকে ধর্ষণ মামলার পলাতক আসামি অনুপ কুমারকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। মাগুরা সদর উপজেলার অনুপ লম্পট প্রকৃতির ধুরন্ধর লোক। ভুক্তভোগী নারীর সঙ্গে ফেসবুকে পরিচয় হয় তার। জানতে পারেন আট বছর আগে স্বামীর সঙ্গে ওই নারীর বিচ্ছেদ হয়। এ সুযোগে নারীর বাড়িতে আসা যাওয়া করেন অনুপ।

শামীম বলেন, ঝিনাইদহে একটি মন্দিরে নিয়ে সিঁদুর পরিয়ে বিয়ের মিথ্যা নাটক সাজিয়ে নারীর সঙ্গে অবৈধ সম্পর্ক স্থাপন করেন ওই যুবক। সংসার করতে নারী অনুপের বাড়ি গেলে বিয়ের কথা অস্বীকার করেন তিনি। নারীকে মারধর করে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেন তিনি।

তিনি বলেন, অশ্লীল ছবি ও ভিডিও ছড়িয়ে দেয়ারও হুমকি দেন অনুপ। বিষয়টি জানাজানি হলে মাগুরা জেলা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে মামলার আবেদন করে নারীর পরিবার। আদালতের নির্দেশে ২ ফেব্রুয়ারি মাগুরা সদর থানায় অনুপের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা হয়।