• সোমবার ১৭ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ২ ১৪৩১

  • || ০৯ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
তারেকসহ পলাতক আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে কোরবানির পশু বেচাকেনা এবং ঘরমুখো মানুষের নিরাপত্তার নির্দেশ তিস্তা মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নে চীনের কাছে ঋণ চেয়েছি গ্লোবাল ফান্ড, স্টপ টিবি পার্টনারশিপ শেখ হাসিনাকে বিশ্বনেতৃবৃন্দের জোটে চায় শিশুর যথাযথ বিকাশ নিশ্চিতে সকল খাতকে শিশুশ্রমমুক্ত করতে হবে শিশুশ্রম নিরসনে প্রত্যেককে আরো সচেতন হতে হবে : প্রধানমন্ত্রী ব্যবসায়িদের প্রতি নিয়ম নীতি মেনে কার্যক্রম পরিচালনার আহ্বান বিনামূল্যে সরকারি বাড়ি গৃহহীনদের আত্মমর্যাদা এনে দিয়েছে প্রধানমন্ত্রীর জিসিএ লোকাল অ্যাডাপটেশন চ্যাম্পিয়নস অ্যাওয়ার্ড গ্রহণ আশ্রয়ণের ঘর মানুষের জীবন বদলে দিয়েছে: প্রধানমন্ত্রী ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত ঘরবাড়ি তৈরি করে দেব : প্রধানমন্ত্রী নতুন সেনাপ্রধান ওয়াকার-উজ-জামান প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর পাচ্ছে সাড়ে ১৮ হাজার পরিবার শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস আজ শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করলেন সোনিয়া গান্ধী মোদীকে বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ জানালেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শেখ হাসিনা-মোদি বৈঠকে দু’দেশের সম্পর্ক আগামীতে আরো দৃঢ় হবে বাংলাদেশ ভুটান থেকে জলবিদ্যুৎ আমদানি করতে আগ্রহী : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা-নরেন্দ্র মোদী সংক্ষিপ্ত শুভেচ্ছা বিনিময় অ্যাক্রেডিটেশন দেশের অর্থনীতিকে সুদৃঢ় করতে সহায়তা করে: রাষ্ট্রপতি

জামিন পেয়ে পাকস্থলীতে ইয়াবা, এপিবিএনে আবারও ধরা

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ৩ অক্টোবর ২০২৩  

হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পাকস্থলীতে করে আনা ইয়াবাসহ জাহেদ হোসেন নামে এক যাত্রীকে গ্রেফতার করেছে বিমানবন্দর আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন। রবিবার (১ অক্টোবর) সন্ধ্যায় তাকে বিমানবন্দরের অভ্যন্তরীণ টার্মিনাল থেকে গ্রেফতার করা হয়। কক্সবাজার থেকে একটি ফ্লাইটে ঢাকায় অবতরণের পর তাকে গ্রেফতার করা হয়। এর আগেও এই যাত্রীকে গত ২৬ মে বিমানবন্দরের সামনে থেকে ইয়াবাসহ গ্রেফতারের পর মামলা করেছিল বিমানবন্দর আর্মড পুলিশ। সেই মামলায় ১০ দিন আগে জামিন পেয়ে আবারও একই কাজ করতে গিয়ে গ্রেফতার হন তিনি।

বিমানবন্দর আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জিয়াউল হক সোমবার (২ অক্টোবর) বলেন, টার্মিনালে সাদা পোশাকে দায়িত্বরত পুলিশ সদস্যদের সন্দেহ হলে কক্সবাজার থেকে আসা যাত্রী মো. জাহেদ হোসেনকে আটক করা হয়। এরপর আর্মড পুলিশ অফিসে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করলে স্বীকার করেন তার পাকস্থলীতে করে ইয়াবা বহন করেছেন। নিশ্চিত হওয়ার জন্য জাহেদকে উত্তরার হলিল্যাব ডায়াগনস্টিক সেন্টারে নিয়ে এক্সরে করানো হয়। এতে জাহেদ হোসেনের পাকস্থলীতে ছোট ছোট প্রায় ৭২টি প্যাকেটের অস্তিত্ব ধরা পড়ে।

জিয়াউল হক বলেন, এরপর বিমানবন্দর থানার সহযোগিতায় জাহেদকে রবিবার রাতেই ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসকের তত্ত্বাবধানে তার পেট থেকে ৭২টি ইয়াবার প্যাকেট উদ্ধার করা হয়। এসব প্যাকেটে মোট ৩৫১৮ পিস ইয়াবা পাওয়া যায়।

পুলিশ জানায়, জাহেদ হোসেন (২৫) কক্সবাজার জেলার টেকনাফ উপজেলার বাসিন্দা। তার পিতার নাম মো. আ. গফুর। জিজ্ঞাসাবাদে তিনি জানান, ১ হাজার ইয়াবা বহনের জন্য তিনি ১০ হাজার টাকায় চুক্তিবদ্ধ হন। এই চালান পৌঁছে দিতে পারলে প্রায় ৪০ হাজার টাকা পেতেন।

জিয়াউল হক আরও জানান, এর আগেও এই যাত্রীকে ২৬ মে বিমানবন্দরের সামনে থেকে ইয়াবাসহ গ্রেফতারের পর মামলা দেওয়া হয়েছিল। সেই মামলায় ১০ দিন আগে জামিন পেয়ে আবারও একই কাজ করতে গিয়ে গ্রেফতার হন।

জাহেদের বিরুদ্ধে বিমানবন্দর থানায় মামলা হয়েছে বলে তিনি জানান।