• রোববার ২৬ মে ২০২৪ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১১ ১৪৩১

  • || ১৭ জ্বিলকদ ১৪৪৫

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
ঢাকায় কোনো বস্তি থাকবে না, দিনমজুররাও ফ্ল্যাটে থাকবে অগ্নিসংযোগকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণের হুঁশিয়ারি বঙ্গবাজারে বিপণী বিতানসহ চারটি উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন নজরুলের বলিষ্ঠ লেখনী মানুষকে মুক্তি সংগ্রামে উদ্দীপ্ত করেছে জোটের শরিক দলগুলোকে সংগঠিত ও জনপ্রিয় করতে নির্দেশ সন্ধ্যায় ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিতে পারে রেমাল বঙ্গবাজার বিপনী বিতানসহ ৪ প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী কৃষিতে ফলন বাড়াতে অস্ট্রেলিয়ার প্রযুক্তি সহায়তা চান প্রধানমন্ত্রী বাজার মনিটরিংয়ে জোর দেওয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর ‘বঙ্গবন্ধু শান্তি পদক’ দেবে বাংলাদেশ ইরানের প্রেসিডেন্টের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক রাইসি-আমির আব্দুল্লাহিয়ান মারা গেছেন: ইরানি সংবাদমাধ্যম সকল ক্ষেত্রে সঠিক পরিমাপ নিশ্চিত করার আহ্বান রাষ্ট্রপতির ওজন ও পরিমাপ নিশ্চিতে কাজ করছে বিএসটিআই: প্রধানমন্ত্রী চাকরির পেছনে না ছুটে যুবকদের উদ্যোক্তা হওয়ার আহ্বান ‘সামান্য কেমিক্যালের পয়সা বাঁচাতে দেশের সর্বনাশ করবেন না’ ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করে আওয়ামী লীগ দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাবে শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস আজ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস আগামীকাল ন্যায়বিচার নিশ্চিত করতে বিচারকদের প্রতি আহ্বান রাষ্ট্রপতির

মালদ্বীপে প্রেসিডেন্ট মুইজ্জুর দলের নিরঙ্কুশ জয়

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ২২ এপ্রিল ২০২৪  

মালদ্বীপের পার্লামেন্ট নির্বাচনে নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে জয় পেয়েছে প্রেসিডেন্ট মোহামেদ মুইজ্জুর দল পিপলস ন্যাশনাল কংগ্রেস (পিএনসি)।  

মোট ৯৩টি আসনের মধ্যে ৮৬টির ফলাফল জানা গেছে।
এর মধ্যে ৬৬টিতে জয় পেয়েছে মুইজ্জুর পিএনসি, যা এককভাবে সরকার গঠনের জন্য প্রয়োজনীয় আসনের চেয়ে অনেক বেশি।  

রোববার (২১ এপ্রিল) রাত সাড়ে ১২টা নাগাদ এ ফল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন।  

এরমাধ্যমে মালদ্বীপের পার্লামেন্টের নিয়ন্ত্রণ হারাচ্ছে ভারতপন্থি ইব্রাহিম মোহামেদ সালেহর দল মালদিভিয়ান ডেমোক্রেটিক পার্টি (এমডিপি)।
পার্লামেন্টের নিয়ন্ত্রণ নির্ধারণে রোববার সকাল থেকে ভোট গ্রহণ শুরু হয়। প্রায় সাড়ে ৯ ঘণ্টা ধরে চলে এ ভোট।

চীনপন্থি মুইজ্জু প্রেসিডেন্ট হলেও পার্লামেন্ট পিপলস মজলিশের নিয়ন্ত্রণ নেওয়া তার জন্য বড় চ্যালেঞ্জ ছিল। কারণ, বিদায়ী পার্লামেন্টে পিএনসি ও তাদের শরিকদের মাত্র আটটি আসন ছিল।  

ভারতবিরোধী অবস্থানের কারণে মালদ্বীপে জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন মোহামেদ মুইজ্জু। গত বছরের সেপ্টেম্বরে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে বিজয়ী হন তিনি। সরকার গঠনের পর মালদ্বীপে অবকাঠামো নির্মাণে চীনের রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে বড় ধরনের চুক্তি করেন মুইজ্জু। মালদ্বীপে থাকা ভারতীয় সেনাদের দেশে ফেরত পাঠানোর প্রক্রিয়াও শুরু করে তার প্রশাসন।

কিন্তু পার্লামেন্ট ভারতপন্থি এমডিপি দলের নিয়ন্ত্রণে থাকায় অনেক সিদ্ধান্ত আটকে যায় মুইজ্জু সরকারের। সংখ্যাগরিষ্ঠতা না থাকায় বিরোধী পক্ষের এমপিদের আপত্তিতে মুইজ্জু মনোনীত তিনজনের মন্ত্রিসভায় যোগদান আটকে যায়। মুইজ্জু প্রস্তাবিত কয়েকটি বিল পাসেও আপত্তি জানান বিরোধীরা।  

তবে এখন পার্লামেন্টের নিয়ন্ত্রণ পাওয়ায় মুইজ্জুর সরকারের জন্য সিদ্ধান্ত নেওয়া সহজ হবে।