• বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৪ ১৪৩১

  • || ১১ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
তারেকসহ পলাতক আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে কোরবানির পশু বেচাকেনা এবং ঘরমুখো মানুষের নিরাপত্তার নির্দেশ তিস্তা মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নে চীনের কাছে ঋণ চেয়েছি গ্লোবাল ফান্ড, স্টপ টিবি পার্টনারশিপ শেখ হাসিনাকে বিশ্বনেতৃবৃন্দের জোটে চায় শিশুর যথাযথ বিকাশ নিশ্চিতে সকল খাতকে শিশুশ্রমমুক্ত করতে হবে শিশুশ্রম নিরসনে প্রত্যেককে আরো সচেতন হতে হবে : প্রধানমন্ত্রী ব্যবসায়িদের প্রতি নিয়ম নীতি মেনে কার্যক্রম পরিচালনার আহ্বান বিনামূল্যে সরকারি বাড়ি গৃহহীনদের আত্মমর্যাদা এনে দিয়েছে প্রধানমন্ত্রীর জিসিএ লোকাল অ্যাডাপটেশন চ্যাম্পিয়নস অ্যাওয়ার্ড গ্রহণ আশ্রয়ণের ঘর মানুষের জীবন বদলে দিয়েছে: প্রধানমন্ত্রী ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত ঘরবাড়ি তৈরি করে দেব : প্রধানমন্ত্রী নতুন সেনাপ্রধান ওয়াকার-উজ-জামান প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর পাচ্ছে সাড়ে ১৮ হাজার পরিবার শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস আজ শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করলেন সোনিয়া গান্ধী মোদীকে বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ জানালেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শেখ হাসিনা-মোদি বৈঠকে দু’দেশের সম্পর্ক আগামীতে আরো দৃঢ় হবে বাংলাদেশ ভুটান থেকে জলবিদ্যুৎ আমদানি করতে আগ্রহী : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা-নরেন্দ্র মোদী সংক্ষিপ্ত শুভেচ্ছা বিনিময় অ্যাক্রেডিটেশন দেশের অর্থনীতিকে সুদৃঢ় করতে সহায়তা করে: রাষ্ট্রপতি

এই গরমে দিনে কয় কাপ চা পান করবেন?

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ২৫ এপ্রিল ২০২৪  

চায়ের কাপে চুমুক দিতে পছন্দ করেন না, এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া মুশকিল। অনেকেই সকালে ঘুম ভেঙে ওঠা থেকে শুরু করে রাতে নিদ্রা যাওয়ার আগে পর্যন্ত একাধিকবার চা পান করেন।

তবে তীব্র দাবদাহে চা পান করাও মুশকিল হয়ে উঠেছে। এই পরিস্থিতিতে বিশেষজ্ঞরাও ঘন ঘন চা পান না করার পরামর্শ দিচ্ছেন। তবে চাপ্রেমীদের কাছে তা মানা বেশ কষ্টকর। এজন্য অনেকের মনেই প্রশ্ন উঠেছে গরমে ঠিক কত কাপ চা পান করা উচিত?

এ বিষয়ে ভারতের কলকাতার বিশিষ্ট পুষ্টিবিদ শর্মিষ্ঠা রায় দত্ত জানান, চা হলো অত্যন্ত রিফ্রেশিং একটি ড্রিংক। তাই হাজার চাপের মধ্যে এক কাপ চা খেলেই মাথা হালকা হয়, কমে দুশ্চিন্তা। শুধু মানসিক প্রশান্তি আনার কাজেই নয়, এছাড়াও নিয়মিত চা খেলে হার্ট ভালো থাকে।

তবে এই তাপপ্রবাহে গরম চা এড়িয়ে চলাই হবে বুদ্ধিমানের কাজ। না হলে পেটের সমস্যা বাড়তে পারে। তবে এতসব কথা জানার পরও যারা গরম চা পান করতে চাইবেন, তারা একদম সকাল-সকাল এক কাপ ধূমায়িত চা পান করতে পারেন।

এই গরমে শরীরের খেয়াল রাখতে চাইলে গরম চা পান করার পরিবর্তে ঠান্ডা চা কা কফি পান করতে পারেন। তাতেই শরীর ঠান্ডা থাকবে বলে জানালেন শর্মিষ্ঠা রায় দত্ত।

আর অবশ্যই দুধ-চিনি ছাড়া চা পান করতে পারলে আরও ভালো। চায়ে দুধ মিশিয়ে খেলে এই পানীয়ের অ্যান্টি অক্সিডেন্ট নষ্ট হয়ে যায়। ফলে চা পান করে আর তেমন কোনো উপকারই মেলে না।

উল্টো গ্যাস-অ্যাসিডিটির সমস্যা বাড়ে। তাই গরম কেন, সারা বছরই দুধ চা পান করা এড়িয়ে চলুন। তার বদলে সুস্থ থাকতে রং চা পান করেই মন ভরাতে হবে। তাতেই মিলবে উপকার।