• বুধবার ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ৮ ১৪৩০

  • || ১০ শা'বান ১৪৪৫

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
অশিক্ষার অন্ধকারে কেউ থাকবে না: প্রধানমন্ত্রী একুশ মাথা নত না করতে শেখায়: প্রধানমন্ত্রী একুশে পদক তুলে দিলেন প্রধানমন্ত্রী মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস আগামীকাল মিউনিখ সম্মেলনে শেখ হাসিনাকে নিমন্ত্রণ বাংলাদেশের গুরুত্ব বুঝায় গুণীজনদের সম্মাননা ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে অনুপ্রাণিত করবে : রাষ্ট্রপতি একুশে পদকপ্রাপ্তদের অনুসরণ করে তরুণরা সোনার বাংলা বিনির্মাণ করবে আজ একুশে পদক তুলে দেবেন প্রধানমন্ত্রী মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলনে যোগদান শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী মিউনিখ সফর শেষে ঢাকার পথে প্রধানমন্ত্রী বরই খেয়ে দুই শিশুর মৃত্যু, কারণ অনুসন্ধান করবে আইইডিসিআর দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের উপযুক্ত জবাব দিন: প্রধানমন্ত্রী গাজায় যা ঘটছে তা গণহত্যা: শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সাক্ষাৎ নেদারল্যান্ডস, যুক্তরাজ্য, আজারবাইজান থেকে বড় বিনিয়োগ আহ্বান জার্মান চ্যান্সেলরের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর বৈঠক শান্তি ফর্মুলা বাস্তবায়নে শেখ হাসিনার সহযোগিতা চাইলেন জেলেনস্কি কাতারের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করেছেন শেখ হাসিনা কিছু খুচরো দল তিড়িং বিড়িং করে লাফাচ্ছে: শেখ হাসিনা মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীকে বিশ্বনেতাদের অভিনন্দন

মনপুরায় ভয়ংকর বিষধর রাসেল ভাইপার উদ্ধার

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ২ জানুয়ারি ২০২৪  

ভোলার মনপুরায় নদীরপাড় ভয়ংকর বিষধর সাপ রাসেল ভাইপার (চন্দ্রবোড়া) উদ্ধার করেছে বনবিভাগ।

মঙ্গলবার (২ জানুয়ারি) দুপুর সাড়ে ৩টায় উপজেলার মনপুরা ইউনিয়নের কাউয়ারটেক কিল্লার পশ্চিম পাশে নদীরপাড়ে পরিত্যক্ত জালে আটক পরে রাসেল ভাইপার সাপটি। খবর পেয়ে বনবিভাগের রামনেওয়াজ বিটের বনবিভাগের কর্মকর্তারা সাপটি উদ্ধার করে। বিকেলে উদ্ধার করা সাপটি মেঘনার মধ্যবর্তী সোনারচর সংরক্ষিত বনাঞ্চলে অবমুক্ত করা হয়।

তবে স্থানীয়রা প্রথমে অজগর সাপ মনে করলেও বন বিভাগের কর্মকর্তারা এটিকে ভয়ংকর সাপ রাসেল ভাইপার বলে শনাক্ত করে। এতে নদীরপাড়ে এলাকার গ্রামগুলোর বাসিন্দাদের মধ্যে বিষধর সাপের আতঙ্ক বিরাজ করছে।

বনবিভাগের রামনেওয়াজ বিটের কর্মকর্তা জাহিদুল ইসলাম মিলন জানান, কাউয়ারটেক নদীর পাড়ে পরিত্যক্ত জালে অজগর সাপ আটকানো অবস্থায় রয়েছে বলে রামনেওয়াজ বনবিভাগের বিট কার্যালয়ে এসে খবর দেয় নদীরপাড় সংলগ্ন গ্রামের একাধিক বাসিন্দা। পরে বনবিভাগের সদস্যরা নদীরপাড়ে জালে আটকানো সাপটি অজগর নয়, এটি পৃথিবীর সবচেয়ে ভয়ংকর সাপ রাসেল ভাইপার বলে শনাক্ত করা হয়।

এই ব্যাপারে মনপুরা বনবিভাগের রেঞ্জ কর্মকর্ত রাশেদুল ইসলাম জানান, বাংলাদেশে যে সব সাপ দেখা যায় তারমধ্যে রাসেল ভাইপার (চন্দ্রবোড়া) সাপটি সবচেয়ে বিষধর। আক্রমণের ক্ষিপ্র গতি ও বিষের তীব্রতার কারনে এই সাপটিকে কিলিং মিশন বলে ডাকা হয়।

এই রেঞ্জ কর্মকর্তা আরও জানান, রাসেল ভাইপার সাপটি নিচু জমির ঘাসযুক্ত উন্মুক্ত পরিবেশে এবং কিছুটা শুষ্ক পরিবেশে বাস করে। এরা নিশাচর, এরা খাদ্য হিসাবে ইদুঁর, ছোট পাখি, টিকটিকি ও ব্যাঙ আহার করে। অন্যান্য সাপ ডিম থেকে বাচ্চার জন্ম হয়, এই সাপ সরাসরি বাচ্চা দেয়। এরা বছরের যেকোনো সময় প্রজনন করে। তাই সবাইকে সচেতন থাকার পরামর্শ দেন