• বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল ২০২৪ ||

  • বৈশাখ ৫ ১৪৩১

  • || ০৮ শাওয়াল ১৪৪৫

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
স্বাস্থ্যসম্মত উপায়ে পশুপালন ও মাংস প্রক্রিয়াকরণের তাগিদ জাতির পিতা বেঁচে থাকলে বহু আগেই বাংলাদেশ আরও উন্নত হতো মধ্যপ্রাচ্যের অস্থিরতার প্রতি নজর রাখার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর প্রধানমন্ত্রী আজ প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহ উদ্বোধন করবেন মন্ত্রী-এমপিদের প্রভাব না খাটানোর নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর দলের নেতাদের নিয়ে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানায় শেখ হাসিনা মুজিবনগর দিবসে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা বর্তমান প্রজন্ম মুক্তিযুদ্ধের প্রকৃত ইতিহাস জানতে পারবে মুজিবনগর দিবস বাঙালির ইতিহাসে অবিস্মরণীয় দিন: প্রধানমন্ত্রী ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস আজ নতুন বছর মুক্তিযুদ্ধবিরোধী অপশক্তির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে প্রেরণা জোগাবে : প্রধানমন্ত্রী আ.লীগ ক্ষমতায় আসে জনগণকে দিতে, আর বিএনপি আসে নিতে: প্রধানমন্ত্রী দেশবাসীকে বাংলা নববর্ষের শুভেচ্ছা প্রধানমন্ত্রীর ঈদুল ফিতর উপলক্ষে দেশবাসীকে শুভেচ্ছা রাষ্ট্রপতির দেশবাসী ও মুসলিম উম্মাহকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী কিশোর অপরাধীদের মোকাবেলায় বিশেষ নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী গণতন্ত্রের প্রতি বিএনপির কোনো দায়বদ্ধতা নেই : ওবায়দুল কাদের ব্রাজিলকে সরাসরি তৈরি পোশাক নেওয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর জুলাইয়ে ব্রাজিল সফর করতে পারেন প্রধানমন্ত্রী আদর্শ নাগরিক গড়তে প্রশংসনীয় কাজ করেছে স্কাউটস: প্রধানমন্ত্রী

ফোনে স্ক্রিন প্রোটেক্টর লাগানো ভালো নাকি খারাপ?

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪  

সারাক্ষণ ফোন ব্যবহার করার ফলে স্ক্রিনে নানান ধরনের দাগ পড়ে যেতে পারে। কিংবা হাত থেকে পড়ে গেলে স্ক্রিনটি ফেটে যেতে যারে বা স্ক্র্যাচ পড়ে যেতে পারে। এজন্য সবাই ফোন কেনার সঙ্গে সঙ্গেই স্ক্রিন প্রোটেক্টর লাগিয়ে নেন। কিন্তু জানেন কি? স্ক্রিন প্রোটেক্টর ভালোর চেয়ে ফোনের ক্ষতি বেশি করে।

কার্ভড ডিসপ্লে স্মার্টফোনগুলোতে দুর্দান্ত অভিজ্ঞতার জন্য লিক্যুইড ইউভি অ্যাঢেসিভ প্রোটেক্টর ব্যবহারে সতর্ক করার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে। আসলে ওই ধরনের প্রোটেক্টরগুলো ডিভাইসের কার্যকারিতার উপর প্রভাব ফেলতে পারে। চলুন জেনে নেওয়া যাক কীভাবে স্ক্রিন প্রোটেক্টর ফোন নষ্ট করে দিতে পারে-

স্ক্রিন প্রোটেক্টরগুলো সাধারণত স্ক্রিন গার্ড অথবা ট্যাম্পার্ড গ্লাসের মতো নয়। কারণ এর মধ্যে থাকে ইউভি গ্লু কিওরিং প্রক্রিয়া। কিন্তু স্ক্রিন প্রোটেক্টরগুলো আমাদের ডিভাইসকে আঘাত করে। আসলে গ্লুর কারণে ইনস্টলেশনের সময় সমস্যা হয়।

অধিকাংশ মানুষই ওই স্ক্রিন প্রোটেক্টর ইনস্টল করানোর জন্য স্থানীয় অ্যাকসেসরির দোকানে যান। আর সেখানেই সব সমস্যা। এই ধরনের প্রোটেক্টর ইনস্টল করার জন্য প্রথমে ডিভাইসের ডিসপ্লে-র উপর ফেলা হয় গ্লু। এর উপরে কার্ভড গ্লাস প্রোটেক্টর লাগানো হয়। গ্লু সমান ভাবে ছড়িয়ে দেওয়ার পরে একটি ইউভি আলো ব্যবহার করা হয়। যাতে সেটা কঠিন হয়ে যায়। আর ডিসপ্লের উপরে কাচটি শক্ত হয়ে এঁটে বসে যায়।

আসলে এই গ্লু প্রয়োগ করার সময় বেশিরভাগ মানুষ ইয়ারপিস স্পিকার্স, বটম স্পিকার্স এবং সাইড বাটনের মতো সংবেদনশীল অংশগুলোকে ঢাকা দেওয়া হয় না। তাই বেশিরভাগ সময় অতিরিক্ত পরিমাণ গ্লু তার মধ্যে ঢুকে যায়। আর একবার ইউভি আলো জ্বালালে সেই অংশেই তা কঠিন হয়ে যায়। আর তাতে ডিভাইস নষ্ট হয়ে যায়। ফলে একাধিক সমস্যা দেখা দিতে পারে আপনার ফোনে। এর মধ্যে অন্যতম হলো অপ্রত্যাশিত ভাবে ফোন রিস্টার্ট, বাটন ম্যালফাংশন, স্পিকার নয়েজ এবং ব্যাটারি কভারের লেদার উঠে যাওয়া।