• বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৪ ১৪৩১

  • || ১১ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
তারেকসহ পলাতক আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে কোরবানির পশু বেচাকেনা এবং ঘরমুখো মানুষের নিরাপত্তার নির্দেশ তিস্তা মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নে চীনের কাছে ঋণ চেয়েছি গ্লোবাল ফান্ড, স্টপ টিবি পার্টনারশিপ শেখ হাসিনাকে বিশ্বনেতৃবৃন্দের জোটে চায় শিশুর যথাযথ বিকাশ নিশ্চিতে সকল খাতকে শিশুশ্রমমুক্ত করতে হবে শিশুশ্রম নিরসনে প্রত্যেককে আরো সচেতন হতে হবে : প্রধানমন্ত্রী ব্যবসায়িদের প্রতি নিয়ম নীতি মেনে কার্যক্রম পরিচালনার আহ্বান বিনামূল্যে সরকারি বাড়ি গৃহহীনদের আত্মমর্যাদা এনে দিয়েছে প্রধানমন্ত্রীর জিসিএ লোকাল অ্যাডাপটেশন চ্যাম্পিয়নস অ্যাওয়ার্ড গ্রহণ আশ্রয়ণের ঘর মানুষের জীবন বদলে দিয়েছে: প্রধানমন্ত্রী ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত ঘরবাড়ি তৈরি করে দেব : প্রধানমন্ত্রী নতুন সেনাপ্রধান ওয়াকার-উজ-জামান প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর পাচ্ছে সাড়ে ১৮ হাজার পরিবার শেখ হাসিনার কারামুক্তি দিবস আজ শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করলেন সোনিয়া গান্ধী মোদীকে বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ জানালেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শেখ হাসিনা-মোদি বৈঠকে দু’দেশের সম্পর্ক আগামীতে আরো দৃঢ় হবে বাংলাদেশ ভুটান থেকে জলবিদ্যুৎ আমদানি করতে আগ্রহী : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা-নরেন্দ্র মোদী সংক্ষিপ্ত শুভেচ্ছা বিনিময় অ্যাক্রেডিটেশন দেশের অর্থনীতিকে সুদৃঢ় করতে সহায়তা করে: রাষ্ট্রপতি

ভারতের সব ম্যাচ হবে লাহোরে, প্রস্তাব পাকিস্তানের

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ২ মে ২০২৪  

ভারতকে কীভাবে পাকিস্তানের মাটিতে খেলানো যায়, তার জন্য অনেক কিছুই করে যাচ্ছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। ভারতীয় দর্শকরা যেন পাকিস্তানে গিয়ে সহজেই খেলা দেখতে পারেন, সেজন্য আগামী চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে ভারতের সবগুলো ম্যাচ লাহোরে আয়োজনের কথা জানিয়েছে পিসিবি।

২০২৫ সালের চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি আয়োজনের জন্য এরইমধ্যে ভেন্যু ঠিক করে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলে (আইসিসি) প্রস্তাব দিয়েছে পিসিবি। প্রস্তাবে তিনটি ভেন্যুর কথা জানিয়েছে পাকিস্তান ক্রিকেট নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি। ভেন্যু তিনটি হলো- করাচি, লাহোর ও রাওয়ালপিণ্ডি।

ক্রিকেটবিষয়ক ওয়েবসাইট ক্রিকইনফো জানিয়েছে, আইসিসিতে পাকিস্তান যে ড্রাফট পাঠিয়েছে, সেখানে ভারতের সবগুলো ম্যাচে লাহোরে আয়োজনের কথা বলা হয়েছে। এছাড়া ফাইনাল ম্যাচটিও হবে এই ভেন্যুতে।

নিরাপত্তা সংকটের অজুহাতে প্রায় ১৭ বছর পাকিস্তানে খেলতে যায় না ভারত। এবারও চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি পাকিস্তানে গিয়ে খেলতে রাজি হচ্ছেন না রোহিত শর্মা ও বিরাট কোহলিরা।

নিরাপত্তা নিয়ে যেন ভারত এবার প্রশ্ন না তোলে, সেজন্য দুই দেশের সীমান্তের কাছাকাছি শহর লাহোরে ম্যাচ আয়োজনের প্রস্তাব দিয়েছে পাকিস্তান। লাহোর এমন একটি জায়গায় অবস্থিত, যেখানে দুই দেশের মধ্যবর্তী ওয়াগা সীমান্ত খুবই কাছে। এই ভেন্যুতে ভারতীয় দর্শকরা সহজেই পাকিস্তান গিয়ে খেলা দেখতে পারবে।

ড্রাফটে আগামী বছরের ফেব্রুয়ারির মাঝামাঝিতে টুর্নামেন্ট আয়োজনের প্রস্তাব দিয়েছেন পিসিবি চেয়ারম্যান মহসিন নকভি। এই আসরে অংশ নেবে বাংলাদেশসহ মোট ৮টি দেশ। ভারত খেলতে যাবে কি যাবে না, এটিই এখন সবচেয়ে বড় সংকট।

২০০৮ সালের পর আর পাকিস্তানের মাটিতে কোনো ম্যাচ খেলেনি ভারত। ওই বছর ভারতের মুম্বাইয়ে হামলার ঘটনার পর থেকে দুই দেশের সম্পর্ক তিক্ত হতে থাকে। এরপর সম্পর্ক জোরদারে উদ্যোগ নিলেও তা বাস্তব রূপ লাভ করেনি।

গত বছর এশিয়া কাপের আয়োজন করেছিল পাকিস্তান। কিন্তু ভারতের সবগুলো ম্যাচ হয়েছে শ্রীলঙ্কায়। অর্থাৎ হাইব্রিড মডেলে আয়োজন করা হয়েছিল টুর্নামেন্টটি। এবার সেই একই পথে হাঁটার কথা ভাবছে ভারত। তবে দেখা যাক, শেষ পর্যন্ত কী হয়।