• রোববার   ২৭ নভেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৩ ১৪২৯

  • || ০২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
সূচকের ওঠানামায় পুঁজিবাজারে চলছে লেনদেন দুপুরে সচিবদের নিয়ে বৈঠকে বসছেন প্রধানমন্ত্রী স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনে ডা. মিলনের আত্মত্যাগ নতুন গতি সঞ্চার করে ডা. মিলন এক উজ্জ্বল নক্ষত্র: রাষ্ট্রপতি মিছিল-মিটিংয়ে আপত্তি নেই, মানুষের ওপর হামলায় সহ্য করবো না ‘যারা গ্রেনেড দিয়ে আমাকে হত্যার চেষ্টা করেছে, তাদের সঙ্গে আলোচনা? যারা উন্নয়ন দেখে না, তারা চাইলে চোখের ডাক্তার দেখাতে পারে- প্রধানমন্ত্রী অর্থনীতির চাকা সচল রাখতে সক্ষম হয়েছি: প্রধানমন্ত্রী যোগাযোগ সম্প্রসারণে বাংলাদেশের সহযোগিতা চায় আমিরাত আ.লীগ স্বাস্থ্য খাতকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দেয়: প্রধানমন্ত্রী যুক্তরাষ্ট্র বঙ্গবন্ধুর খুনিকে লালন-পালন করছে: প্রধানমন্ত্রী সচিব সভায় ১০ নির্দেশনা দেবেন প্রধানমন্ত্রী ব্যাংকে টাকা না থাকার গুজবে চোরেরা সুযোগ নেবে: প্রধানমন্ত্রী ‘রিজার্ভ নিয়ে সমস্যা নেই, সব ব্যাংকে টাকা আছে’ ‘যা চাইবেন তার চেয়ে বেশি দেবো, ওয়াদা দেন নৌকায় ভোট দেবেন’ রক্ত ও হত্যা ছাড়া বিএনপি কিছু দিতে পারেনি : প্রধানমন্ত্রী বিমানবাহিনী এখন অনেক বেশি শক্তিশালী, আধুনিক ও চৌকস: প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশের অর্থনীতি এখনও গতিশীল, নিরাপদ: প্রধানমন্ত্রী যশোরে বিমান বাহিনীর কুচকাওয়াজে প্রধানমন্ত্রী আমাদের ছেলে-মেয়েরা একদিন বিশ্বকাপ খেলবে: প্রধানমন্ত্রী

সাপের কামড়ে আহত সাপুড়ে সাপ নিয়ে হাসপাতালে

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ১৪ নভেম্বর ২০২২  

চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার গোবিন্দপুর গ্রামে সাপের খেলা দেখানোর সময় সাপের কামড়ে আহত হন সাপুড়ে সোহেল মণ্ডল। পরে কামড় দেওয়া সাপটি নিয়ে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগে হাজির হন তিনি।
শনিবার বিকেলে এ ঘটনা ঘটে। সোহেল মণ্ডল ঝিনাইদহের শৈলকূপা উপজেলার আসাননগর গ্রামের শহিদুল ইসলামের ছেলে। সোহেল মণ্ডল বিভিন্ন গ্রামে সাপের খেলা দেখিয়ে জীবিকা নির্বাহ করে আসছেন।

সোহেল মণ্ডল বলেন, তিন সাপুড়ে মিলে শনিবার বিকেলে সাপ খেলা দেখাচ্ছিলাম। এ সময় বিষধর খৈয়া গোখরা আমার ডান হাতে কামড় দেয়। পরে সহকর্মীরা আমাকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নিয়ে আসে। চিকিৎসা নিতে সুবিধা হওয়ার কারণে সাপটাকেও সঙ্গে করে নিয়ে আসি।

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা. জুবাইদা জামান জয়া বলেন, সোহেল মণ্ডল শঙ্কামুক্ত কিনা এখনই বলা যাচ্ছে না। আমরা প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করেছি।