• রোববার   ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ ||

  • আশ্বিন ১০ ১৪২৮

  • || ১৭ সফর ১৪৪৩

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
নভেম্বরে এসএসসি ও ডিসেম্বরে এইচএসসি পরীক্ষা: শিক্ষামন্ত্রী জরুরি ভিত্তিতে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন জোরদারের দাবি প্রধানমন্ত্রীর করোনার টিকাকে ‘বৈশ্বিক জনস্বার্থ সামগ্রী’ ঘোষণার আহ্বান কুয়েত ও সুইডেনের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে শেখ হাসিনার বৈঠক দেশের বিভিন্ন প্রতিশ্রুতিশীল খাতে মার্কিন বিনিয়োগের আহ্বান এসডিজি’র উন্নতিতে জাতিসংঘে পুরস্কৃত বাংলাদেশ নিউইয়র্কে পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী টিকা নেওয়ার পর খোলার সিদ্ধান্ত নিজ নিজ বিশ্ববিদ্যালয় নিতে পারবে বঙ্গবন্ধু ভাষণের দিনকে এবারও ‘বাংলাদেশি ইমিগ্রান্ট ডে’ ঘোষণা ফিনল্যান্ডে পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী শীর্ষ অর্থনীতির দেশগুলোর অংশগ্রহণ চান প্রধানমন্ত্রী `লাশের নামে একটা বাক্সো সাজিয়ে-গুজিয়ে আনা হয়েছিল` টকশোতে কে কী বলল ওসব নিয়ে দেশ পরিচালনা করি না: প্রধানমন্ত্রী উপহারের ঘরে দুর্নীতি তদন্তে দুদককে নির্দেশ দিলেন প্রধানমন্ত্রী জিয়াকে আসামি করতে চেয়েছিলাম: প্রধানমন্ত্রী এটা তো দুর্নীতির জন্য হয়নি, এটা কারা করল? ওজোন স্তর রক্ষায় সরকারের পাশাপাশি বেসরকারি খাতকেও এগিয়ে আসতে হবে ওজোন স্তর রক্ষায় সিএফসি গ্যাসনির্ভর যন্ত্রের ব্যবহার কমাতে হবে ১২ বছরের শিক্ষার্থীরা টিকার আওতায় আসছে: সংসদে প্রধানমন্ত্রী ২৪ সেপ্টেম্বর জাতিসংঘে ভাষণ দিবেন প্রধানমন্ত্রী

স্টকহোমে বঙ্গবন্ধুর জীবন ও কর্মের ওপর আলোকচিত্র প্রদর্শনী

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ২ আগস্ট ২০২১  

মুজিববর্ষ উপলক্ষে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবন ও কর্মের ওপর সুইডেনের রাজধানী স্টকহোমে আলোকচিত্র প্রদর্শনী শুরু হয়েছে।

বাংলাদেশ দূতাবাস স্টকহোমের আয়োজনে গতকাল রোববার ‘আলোকচিত্রে বঙ্গবন্ধু’র উদ্বোধন করা হয়। দূতাবাস প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সুইডেন নিবাসী বঙ্গবন্ধু অনুরাগী মোহাম্মদ আফতাবুর রহমানের সংগৃহীত এবং মুদ্রিত জাতির পিতার পারিবারিক, রাজনৈতিক, আন্তর্জাতিক ও কূটনৈতিক জীবনের বিভিন্ন দুর্লভ ছবি এই আলোকচিত্র প্রদর্শনীতে প্রদর্শিত হচ্ছে।

সোমবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, অনুষ্ঠানের শুরুতে রাষ্ট্রদূত মো. নাজমুল ইসলাম, মোহাম্মদ আফতাবুর রহমান এবং অন্যান্য অতিথির উপস্থিতিতে ফিতা কেটে আলোকচিত্র প্রদর্শনীর উদ্বোধন করা হয়।

এরপর উন্মুক্ত আলোচনা অনুষ্ঠানে বক্তারা বঙ্গবন্ধুর জীবনী, রাজনৈতিক দূরদর্শিতা এবং বিভিন্ন অর্জন নিয়ে আলোচনা করেন। বক্তারা আলোকচিত্র প্রদর্শনীর আয়োজনকে স্বাগত জানান এবং এ ধরণের আয়োজনের প্রয়োজনীয়তা ও গুরুত্ব তুলে ধরেন।

বক্তারা বলেন, সবাইকে হাতে হাত রেখে বঙ্গবন্ধুর জীবন, কর্ম এবং চেতনা প্রবাসীসহ সব বাঙালিদের মধ্যে ছড়িয়ে দেওয়ার গুরু দায়িত্ব পালন করতে হবে। 

রাষ্ট্রদূত মো. নাজমুল ইসলাম তার বক্তব্যের সূচনায় স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অপরিসীম অবদানের কথা এবং বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধের কথা বিনম্র শ্রদ্ধায় স্মরণ করেন।

তিনি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং ১৫ আগস্টে বঙ্গবন্ধুর পরিবারের শহিদ সদস্যদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন। 

মুজিববর্ষকে উপজীব্য করে দূতাবাসের বিভিন্ন কার্যক্রম তুলে ধরে তিনি বলেন, এই আলোকচিত্র প্রদর্শনী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অসামান্য স্মৃতিগুলোকে এবং তার আত্মত্যাগ এবং সংগ্রামী জীবনকে মানুষের হৃদয়ের মণিকোঠায় তুলে ধরতে সক্ষম হবে।

তিনি আরো বলেন, যদিও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মহান জীবন ও কর্মকে ছবিতে পুরোপুরি ধারণ করা সম্ভব নয়, এই আলোকচিত্র প্রদর্শনী পরবর্তী প্রজন্মের কাছে তার কর্ম ও চেতনা ছড়িয়ে দিতে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখবে।  

দুই সপ্তাহব্যাপী এ আলোকচিত্র প্রদর্শনী ১৫ আগস্ট পর্যন্ত দূতাবাস প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হবে। আলোকচিত্র প্রদর্শনীটি সবার জন্য উন্মুক্ত রাখা হয়েছে।