• শুক্রবার   ১৯ আগস্ট ২০২২ ||

  • ভাদ্র ৩ ১৪২৯

  • || ২০ মুহররম ১৪৪৪

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করলেন জাতিসংঘ মানবাধিকার প্রধান বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর আ. লীগের নেতারা কী করেছিলেন: প্রধানমন্ত্রী সুশীল বাবু মইনুল খুনিদের নিয়ে দল গঠন করে: প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু হত্যায় জড়িতরা আজ মানবাধিকারের কথা বলে: প্রধানমন্ত্রী ভারত পারলে আমরাও রাশিয়া থেকে তেল কিনতে পারবো: প্রধানমন্ত্রী ‘ষড়যন্ত্র প্রতিহত করে বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচারের রায় কার্যকর করেছি’ খবরদার আন্দোলনকারীদের ডিস্টার্ব করবেন না: প্রধানমন্ত্রী জাতির পিতার মৃত্যু নেই প্রজন্ম থেকে প্রজন্মান্তরে বঙ্গবন্ধু আমাদের রোল মডেল শোক দিবসে বঙ্গভবনে বিশেষ দোয়ার আয়োজন রাষ্ট্রপতির টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানোর বিষয়ে পরিষ্কার ব্যাখ্যার নির্দেশ বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল ট্রাস্টের সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত মানবাধিকার কমিশনকে যথাযথভাবে দায়িত্ব পালনের নির্দেশ রাষ্ট্রপতির ৪০০তম ওয়ানডে খেলার অপেক্ষায় বাংলাদেশ জ্বালানি নিরাপত্তা: বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনার অবদান রাজনৈতিক সিদ্ধান্তে বঙ্গমাতার মনোভাব প্রতিফলিত হয়েছে বঙ্গমাতার সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা স্বাধীনতার সংগ্রামে বঙ্গবন্ধুর সারথি ছিলেন আমার মা: প্রধানমন্ত্রী বঙ্গমাতা কঠিন দিনগুলোতে ছিলেন দৃঢ় ও অবিচল: রাষ্ট্রপতি

বিধিনিষেধ ভাঙলেই জেল-জরিমানা

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ১৩ জানুয়ারি ২০২২  

নতুন করে করোনার সংক্রমণ বিস্তার রোধে আগামীকাল বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হচ্ছে ১১ দফার বিধিনিষেধ। এসময় প্রতিটি কর্মক্ষেত্রে মাস্ক পরতে হবে। বন্ধ থাকবে সভা-সমাবেশ। বাস-ট্রেন-লঞ্চে মাস্ক পরিধান ছাড়া চলাচল করা যাবে না। এসব নির্দেশনা কেউ না মানলে তাকে জেল-জরিমানার মুখে পড়তে হবে।

বুধবার (১২ জানুয়ারি) রাজধানীর মহাখালীতে বাংলাদেশ কলেজ অব ফিজিশিয়ান সার্জনে (বিসিপিএস) কোরিয়া থেকে পাওয়া অ্যাম্বুলেন্সসহ অন্যান্য মেডিকেল উপকরণ বিতরণ অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, দেশের করোনা পরিস্থিতি যাতে আমেরিকা ও ইউরোপের মতো না হয় সেজন্য ১১ দফা বিধিনিষেধের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। এসব বিধিনিষেধ আগামীকাল (বৃহস্পতিবার) থেকে কার্যকর হবে।

জাহিদ মালেক বলেন, দেশের স্বাস্থ্যসেবাকে এগিয়ে নিতে ৭২টি হাসপাতালে অ্যাম্বুলেন্স দেওয়া হবে। যা মুমূর্ষু রোগীদের জন্য অনেক কাজে দেবে। এসবের পাশাপাশি স্বাস্থ্যসেবাকে আরও উন্নত করতে ল্যাপটপ ও ডেস্কটপগুলো দেওয়া হচ্ছে। পুরো স্বাস্থ্য ব্যবস্থাকেই আধুনিকায়ন করা হবে। যেখানে প্রায় দুই হাজার কোটি টাকা ব্যয় হবে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান, দেশে বুধবার করোনা রোগী শনাক্তের হার যেখানে ছিল ৯ শতাংশে, তা বৃহস্পতিবার ১১ শতাংশে উঠেছে। ১০-১৫ দিন আগেও শনাক্ত রোগী দুই থেকে আড়াইশ জন থাকলে এখন সেটি তিন হাজারের কাছাকাছি।

জাহিদ মালেক বলেন, কিছুদিন আগেও হাসপাতালে রোগী ছিল আড়াইশ মতো। আর এখন তা বেড়ে হাজার ছাড়িয়েছে। এটি আরো বাড়বে। এতে করে মৃত্যুও বাড়বে। আবারও চিকিৎসকদের সেবা দিতে হিমশিম খেতে হবে। এটা বাড়লে বেকায়দায় পড়তে হবে। এরই মধ্যে ২০ হাজার শয্যা প্রস্তুত করতে বলা হয়েছে, যা আগেই ছিল।

দেশে কোভিড টিকাদানের বিষয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, এরইমধ্যে দেশে দুই ডোজ মিলে ১৪ কোটি টিকা দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে প্রথম ডোজ আট কোটি ও দ্বিতীয় ডোজ ছয় কোটি। এছাড়া শিক্ষার্থীদের কোটির বেশি দিতে হবে, এরই মধ্যে যা ৬৮ হাজার হয়েছে। স্কুল-কলেজে টিকা ছাড়া না যাওয়ার সিদ্ধান্তের পর টিকা নেওয়ার হার বেড়েছে।