• শুক্রবার   ১৯ আগস্ট ২০২২ ||

  • ভাদ্র ৩ ১৪২৯

  • || ২০ মুহররম ১৪৪৪

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করলেন জাতিসংঘ মানবাধিকার প্রধান বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর আ. লীগের নেতারা কী করেছিলেন: প্রধানমন্ত্রী সুশীল বাবু মইনুল খুনিদের নিয়ে দল গঠন করে: প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু হত্যায় জড়িতরা আজ মানবাধিকারের কথা বলে: প্রধানমন্ত্রী ভারত পারলে আমরাও রাশিয়া থেকে তেল কিনতে পারবো: প্রধানমন্ত্রী ‘ষড়যন্ত্র প্রতিহত করে বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচারের রায় কার্যকর করেছি’ খবরদার আন্দোলনকারীদের ডিস্টার্ব করবেন না: প্রধানমন্ত্রী জাতির পিতার মৃত্যু নেই প্রজন্ম থেকে প্রজন্মান্তরে বঙ্গবন্ধু আমাদের রোল মডেল শোক দিবসে বঙ্গভবনে বিশেষ দোয়ার আয়োজন রাষ্ট্রপতির টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানোর বিষয়ে পরিষ্কার ব্যাখ্যার নির্দেশ বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল ট্রাস্টের সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত মানবাধিকার কমিশনকে যথাযথভাবে দায়িত্ব পালনের নির্দেশ রাষ্ট্রপতির ৪০০তম ওয়ানডে খেলার অপেক্ষায় বাংলাদেশ জ্বালানি নিরাপত্তা: বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনার অবদান রাজনৈতিক সিদ্ধান্তে বঙ্গমাতার মনোভাব প্রতিফলিত হয়েছে বঙ্গমাতার সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা স্বাধীনতার সংগ্রামে বঙ্গবন্ধুর সারথি ছিলেন আমার মা: প্রধানমন্ত্রী বঙ্গমাতা কঠিন দিনগুলোতে ছিলেন দৃঢ় ও অবিচল: রাষ্ট্রপতি

বঙ্গোপসাগরে জাহাজে লুটের সময় ৪৩ জলদস্যু আটক

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ১৫ ডিসেম্বর ২০২১  

গভীর বঙ্গোপসাগরে জাহাজ থেকে মালামাল লুটের সময় ৩টি বোটসহ ৪৩ জলদস্যুকে আটক করেছে কোস্ট গার্ড। টানা ৬ ঘণ্টা ধাওয়া এবং অভিযান চালিয়ে লুণ্ঠিত মালামাল ও দেশীয় অস্ত্রসহ তাদের আটক করা হয়েছে। বাংলাদেশে আসা বিদেশি জাহাজের কর্মকর্তারাই জলদস্যুদের তথ্য সরবরাহ করত বলে অভিযোগ উঠেছে। ইতোমধ্যে বঙ্গোপসাগরে আটক হওয়া জলদস্যুদের নামিয়ে আনা আনা হচ্ছে কোস্ট গার্ডের জাহাজ থেকে।

বুধবার (১৫ ডিসেম্বর) দুপুরে চারটি বোটে করে হানা দেয় স্ক্র্যাপ জাহাজ এমভি লাদিন্দায়। তাৎক্ষণিকভাবে শিপিং এজেন্ট থেকে অভিযোগ পেয়েই ঘটনাস্থলে রওনা হয় কোস্ট গার্ড জাহাজ শহীদ মনসুর আলী। টানা অভিযান চালিয়ে আটক করা হয় ৪৩ জলদস্যুকে। উদ্ধার হয় লুট করা মালামাল।

অভিযানে অংশ নেওয়া কোস্ট গার্ড কর্মকর্তা লে. কমান্ডার মেহেদী গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। অনেকটা চ্যালেঞ্জের মধ্যে গভীর সাগরে অভিযান চালাতে হয়েছিল কোস্ট গার্ড সদস্যদের। আর জলদস্যুদের দলটি বিশাল আকৃতির হওয়ায় ঝুঁকি নিয়েই তাদের আটক করতে হয়েছে।

এদিকে আটককৃত জলদস্যুদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ এবং মোবাইল পরীক্ষা করে গভীর সাগরে বিদেশি জাহাজে ডাকাতি সংক্রান্ত গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পেয়েছে কোস্ট গার্ড। বিদেশি জাহাজের এজেন্টসহ বিভিন্ন পর্যায় থেকে গভীর সাগর এবং বন্দরের বহির্নোঙরে অবস্থানরত জাহাজের তথ্য জানিয়ে দেওয়া হতো জলদস্যুদের।

গভীর সাগর থেকে এবারই প্রথম এত বিশাল জলদস্যু দলকে একসঙ্গে আটক করা হয়েছে।