• শুক্রবার   ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ||

  • মাঘ ২১ ১৪২৯

  • || ১১ রজব ১৪৪৪

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
জনগণের ভাগ্য নিয়ে ছিনিমিনি খেলতে আসিনি: প্রধানমন্ত্রী সবাইকে হিসাব করে চলার অনুরোধ প্রধানমন্ত্রীর উন্নত-সমৃদ্ধ দেশ গড়তে কৃষি উন্নয়নের বিকল্প নেই: প্রধানমন্ত্রী ক্রীড়া শিক্ষায় বাস্তবমুখী পদক্ষেপ নিয়েছি: প্রধানমন্ত্রী নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিতে কাজ করছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী জনস্বাস্থ্য নিশ্চিতে নিরাপদ ও পুষ্টিকর খাদ্যের বিকল্প নেই জনগণকে বিশ্বাস করি, তারা যদি চায় আমরা থাকবো: প্রধানমন্ত্রী ২০২২-২৩ অর্থবছরে ১০ বিলিয়ন ডলারের বেশি রেমিট্যান্স এসেছে ভাষা-সাহিত্য চর্চাও ডিজিটাল করার পরামর্শ প্রধানমন্ত্রীর রাষ্ট্রপতির সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ মানহীন শিক্ষায় উচ্চশিক্ষিত বেকার বাড়ছে: রাষ্ট্রপতি গণতান্ত্রিক ধারাকে বাধাগ্রস্ত করতে চায় এক শ্রেণির বুদ্ধিজীবী মুসলিম উম্মাহকে ফিলিস্তিনের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান দেশের ব্যাপক উন্নয়ন বিবেচনায় নিতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান গণতান্ত্রিক ধারা অব্যাহত থাকলেই মানুষের উন্নতি হয়: প্রধানমন্ত্রী আমি জোর করে দেশে ফিরেছিলাম, আ.লীগ পালায় না: শেখ হাসিনা আজ ১১ প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী ১-৭ মার্চ মোবাইলে কল করলেই শোনা যাবে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ পুলিশি সেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিন: প্রধানমন্ত্রী সন্ত্রাস রুখে দিতে প্রশংসনীয় ভূমিকা রেখে যাচ্ছে পুলিশ

মোটরসাইকেল চুরিতে তার সময় লাগে এক মিনিট!

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ১ ডিসেম্বর ২০২২  

তালা খোলা থেকে শুরু করে একটি মোটরসাইকেল চুরির কাজ সম্পন্ন করতে তার সময় লাগে মাত্র এক মিনিট। এরপর চুরির মোটরসাইকেল পৌঁছে দেন জেলার বিভিন্ন স্থানে সহযোগীদের হাতে।
এই চোর সিন্ডিকেটের মাস্টার মাইন্ড রিপন মিয়ার (৩০) নেটওয়ার্ক দেশজুড়ে।

দীর্ঘদিন পালিয়ে থাকার পর অবশেষে র‌্যাবের হাতে ধরা পড়লেন রিপন। তিনি হবিগঞ্জ সদর উপজেলার বহুলা গ্রামের নূর আলীর ছেলে। চুরি-ডাকাতির অভিযোগে অনেকগুলো মামলা রয়েছে তাঁর নামে।

বুধবার (৩০ নভেম্বর) বিকেলে লেফটেন্যান্ট কমান্ডার মোহাম্মদ নাহিদ হাসানের নেতৃত্বে র‌্যাব-৯ শায়েস্তাগঞ্জ কার্যালয়ের একটি দল ভৈরব থানার সম্ভুপুর রেললাইন সংলগ্ন বস্তি থেকে তাকে আটক করে।
 
রাতে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে র‌্যাব জানায়, রিপন কৌশলে এক মিনিটেই মোটরসাইকেল আনলক করতে পারেন। অল্প সময়েই মোটরসাইকেল চুরির অভিজ্ঞতা দীর্ঘদিনের। দলবল নিয়ে হবিগঞ্জ থেকে মোটরসাইকেল চুরির পর দেশের বিভিন্ন জেলায় থাকা সহযোগীদের মাধ্যমে বিক্রি করতেন। আত্মগোপনে থাকতেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া, কিশোরগঞ্জ ও ভৈরব থানা এলাকায়।
 
সম্প্রতি হবিগঞ্জ জেলা সদর, শায়েস্তাগঞ্জ, চুনারুঘাট ও মাধবপুর উপজেলা থেকে অনেকগুলো মোটরসাইকেল চুরি হয়। এরপরেই র‌্যাব মূল হোতার সন্ধানে নামে। পরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রিপনকে ভৈরব থেকে আটক করা হয়। চুরি হওয়া মোটরসাইকেলগুলো উদ্ধারের কার্যক্রম চলছে।
 
র‌্যাব আরও জানায়, রিপন মোটরসাইকেল, প্রাইভেটকার, ইজিবাইক ইত্যাদি যানবাহন চুরি ও ডাকাতি করেন। এসব অভিযোগে থানায় তার নামে অনেকগুলো মামলা রয়েছে। দেশজুড়ে ছড়িয়ে রয়েছে তার চুরির জগতের নেটওয়ার্ক। র‌্যাবের জিজ্ঞাসাবাদে তিনি আরও সহযোগীদের নাম প্রকাশ করেছেন। পরে রিপনকে পুলিশে সোপর্দ করা হয়।