• মঙ্গলবার   ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১ ||

  • আশ্বিন ৫ ১৪২৮

  • || ১২ সফর ১৪৪৩

আলোকিত ভোলা
ব্রেকিং:
নিউইয়র্কে পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী টিকা নেওয়ার পর খোলার সিদ্ধান্ত নিজ নিজ বিশ্ববিদ্যালয় নিতে পারবে বঙ্গবন্ধু ভাষণের দিনকে এবারও ‘বাংলাদেশি ইমিগ্রান্ট ডে’ ঘোষণা ফিনল্যান্ডে পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী শীর্ষ অর্থনীতির দেশগুলোর অংশগ্রহণ চান প্রধানমন্ত্রী `লাশের নামে একটা বাক্সো সাজিয়ে-গুজিয়ে আনা হয়েছিল` টকশোতে কে কী বলল ওসব নিয়ে দেশ পরিচালনা করি না: প্রধানমন্ত্রী উপহারের ঘরে দুর্নীতি তদন্তে দুদককে নির্দেশ দিলেন প্রধানমন্ত্রী জিয়াকে আসামি করতে চেয়েছিলাম: প্রধানমন্ত্রী এটা তো দুর্নীতির জন্য হয়নি, এটা কারা করল? ওজোন স্তর রক্ষায় সরকারের পাশাপাশি বেসরকারি খাতকেও এগিয়ে আসতে হবে ওজোন স্তর রক্ষায় সিএফসি গ্যাসনির্ভর যন্ত্রের ব্যবহার কমাতে হবে ১২ বছরের শিক্ষার্থীরা টিকার আওতায় আসছে: সংসদে প্রধানমন্ত্রী ২৪ সেপ্টেম্বর জাতিসংঘে ভাষণ দিবেন প্রধানমন্ত্রী প্রতিদিন প্রতি মুহূর্তে শোক প্রস্তাব নিতে চাই না: প্রধানমন্ত্রী এই সংসদে একের পর এক সদস্য হারাচ্ছি: প্রধানমন্ত্রী সবাই স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে শিক্ষার রূপরেখা সাজানোর নির্দেশ শিক্ষা কার্যক্রমকে সময়োপযোগী করা অপরিহার্য: প্রধানমন্ত্রী আগেরবার সব ভালো কাজের জন্য মামলা খেয়েছিলাম: প্রধানমন্ত্রী

বিদ্যুতের আওতায় রাঙ্গাবালী ॥ কাল উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

আলোকিত ভোলা

প্রকাশিত: ১১ সেপ্টেম্বর ২০২১  

পরীক্ষামূলকভাবে বাংলাদেশের বিচ্ছিন্ন দ্বীপ উপজেলা পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালীতে বিদ্যুত সরবরাহ চালু হয়েছে। জাতীয় গ্রিডে সংযুক্তির মাধ্যমে ১১০ কিলোমিটার সঞ্চালন লাইনের সাহায্যে প্রথম পর্যায়ে উপজেলা সদর বাহেরচর বাজারে বিদ্যুত সংযোগ দেয়া হয়েছে। দ্বিতীয় পর্যায়ে বেশ জোরেশোরে চলছে একের পর এক গ্রাম বিদ্যুতায়নের কাজ। পল্লীবিদ্যুতের ‘আলোর ফেরিওয়ালা’ হিসেবে খ্যাত কয়েকটি টিমের বিদ্যুত কর্মীরা এখন ছুটছেন এক বাড়ি থেকে আরেক বাড়িতে বিদ্যুতায়নের কাজে। কর্তৃপক্ষ জানান, এরই মধ্যে চার হাজারেরও বেশি বাড়িঘরে বিদ্যুত পৌঁছে দেয়া হয়েছে।

পটুয়াখালী পল্লীবিদ্যুত সমিতির গলাচিপার ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার প্রকৌশলী মোঃ মাইনউদ্দিন জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামীকাল ১২ সেপ্টেম্বর রাঙ্গাবালীর বিদ্যুত সরবরাহ ব্যবস্থা আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করবেন।

বঙ্গোপসাগর মোহনায় জেগে ওঠা দ্বীপ রাঙ্গাবালী। পটুয়াখালী জেলা শহর থেকে ৪০ কিলোমিটার দক্ষিণে অবস্থান রাঙ্গাবালীর। দক্ষিণে বঙ্গোপসাগর। উত্তরে আগুনমুখা নদী। পূর্বে বুড়াগৌরাঙ্গ নদ ও পশ্চিমে রাবনাবাদ নদী। ২০১২ সালের ২৫ ফেব্রুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের মাধ্যমে উপজেলা হিসেবে পথচলা শুরু হয় রাঙ্গাবালীর। তবে বিচ্ছিন্ন এ দ্বীপ উপজেলায় এত দিনেও পৌঁছায়নি বিদ্যুতের আলো। দ্বীপ উপজেলাটিতে বিদ্যুত পৌঁছে দিতে তিনটি নদীতে সাবমেরিন ক্যাবল স্থাপন করা হয়েছে। পটুয়াখালী পল্লীবিদ্যুত সমিতি সূত্রে জানা গেছে, জাতীয় গ্রিডে যুক্ত করতে রাঙ্গাবালীর ছোটবাইশদিয়া ইউনিয়নের গহিনখালীতে ১০ মেগাওয়াটের বিদ্যুত উপকেন্দ্র নির্মাণ করা হয়েছে। ভোলার চরফ্যাশনের মুজিবনগর উপকেন্দ্র থেকে আমগাছিয়া বাজার হয়ে বুড়াগৌরাঙ্গ নদের দুই কিলোমিটার তলদেশ দিয়ে সাবমেরিন ক্যাবল পৌঁছেছে গহিনখালী উপকেন্দ্রে। এ জন্য ২২ কিলোমিটার দীর্ঘ ৩৩ কেভির বিদ্যুত সঞ্চালন লাইন টানা হয়েছে। মোট সঞ্চালন লাইন টানা হয়েছে ১১০ কিলোমিটার। এছাড়া রাঙ্গাবালী সদর, ছোটবাইশদিয়া, বড় বাইশদিয়া ও মৌডুবী ইউনিয়নে এক হাজার কিলোমিটার বিদ্যুত বিতরণ লাইন টানা হয়েছে। এই চারটি ইউনিয়নের ৮২টি গ্রামে প্রাথমিক পর্যায়ে ১৯ হাজার ৭৭ জন গ্রাহক বিদ্যুত সুবিধা পাচ্ছেন। এছাড়া চালিতাবুনিয়া ইউনিয়নে বিদ্যুত নেয়া হয়েছে গলাচিপা সদর ইউনিয়ন থেকে আগুনমুখা নদীর তলদেশে দুই কিলোমিটার সাবমেরিন ক্যাবলের মাধ্যমে। সাগরপাড়ের চরমোন্তাজ ইউনিয়নেও ভোলার মুজিবনগর থেকে পৃথক সাবমেরিন ক্যাবলের মাধ্যমে বিদ্যুত পৌঁছে দেয়া হয়েছে। এ দুটি ইউনিয়নেও কয়েক হাজার গ্রাহক বিদ্যুত সুবিধা পাবেন।

ছোটবাইশদিয়া ইউনিয়নের বড়ইতলা বাজারের খুদে দোকানি রফিকুল ইসলাম (৬৬) বলেন, আমাদের কাছে বিদ্যুত ছিল স্বপ্ন। জীবনে বিদ্যুতের আলো দেখে যেতে পারব, তা ভাবিনি। কিন্তু এখন আমার দোকানেই বিদ্যুতের আলো জ্বলছে, ভাবতেও ভাল লাগছে। স্বপ্ন পূরণ হলো।

সদর ইউনিয়নের বাহেরচর এলাকার বাসিন্দা ছাব্বির হোসেন (৩৫) জানান, বিদ্যুত পাওয়ায় উপজেলার মানুষের জীবনযাত্রার মানে পরিবর্তন আসবে। অর্থনৈতিক কর্মকান্ড গতি পাবে।